12:22pm  Friday, 22 Mar 2019 || 
   
শিরোনাম



উত্ত্যক্ত'র অভিযোগে স্কুলছাত্র বহিষ্কার
২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১২ আশ্বিন ১৪২৫, ১৬ মহররম ১৪৪০



আজ বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলায় যৌন হয়রানির অভিযোগে ওবায়দুল্লাহ নামে এক ছাত্রকে স্কুল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

ওবায়দুল্লাহ জয়শ্রী ইউনিয়নের বাদেহরিপুর গ্রামের বাসিন্দা জাহের উদ্দিনের ছেলে ও জয়শ্রী উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির মানবিক বিভাগের ছাত্র।

জানা যায়, সকাল সাড়ে ১০টায় জয়শ্রী উচ্চ বিদ্যালয়ে ক্লাস শুরু হয়। ক্লাস শুরুর ১০ থেকে ১৫ মিনিট আগে ওবায়দুল্লাহ বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় তলায় তার শ্রেণিকক্ষের সামনে এক ছাত্রীকে একা পেয়ে শারীরিক অঙ্গভঙ্গির মাধ্যমে বিভিন্নভাবে উত্ত্যক্ত করে। এ সময় তার দুজন সহপাঠী বিষয়টি দেখতে পেয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকসহ অন্যান্য শিক্ষকদের জানায়।

পরে ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক শেখ ফরিদ আহমেদ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য ছালেক মিয়া, রঞ্জিত সরকার, আবুল কালাম ও অভিযুক্ত ওবায়দুল্লাহর বাবা জাহের উদ্দিনকে বিদ্যালয়ে ডাকেন। কিন্তু ওবায়দুল্লার বাবা লজ্জায় বিদ্যালয়ে না এসে ওবায়দুল্লার মা স্বপ্না বেগমকে বিদ্যালয়ে পাঠান।

পরে প্রধান শিক্ষক ও উপস্থিত ম্যানেজিং কমিটির সদস্যরা ওবায়দুল্লাকে ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত ৩৩ দিনের জন্য বিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেন। একই সঙ্গে বহিষ্কারের নোটিশ ক্লাস চলাকালে বিদ্যালয়ের প্রতিটি শ্রেণিকক্ষে ঘোষণা করে জানিয়ে দেওয়া হয়।

অভিযুক্ত ওবায়দুল্লাহর বক্তব্য জানতে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে নয়ন নামে তার এক বন্ধু ফোন রিসিভ করে বলে, ‘ওবায়দুল্লার ফোন নষ্ট হয়ে গেছে তাই আমার ফোনে তার সিমকার্ড রয়েছে।’

এদিকে উত্ত্যক্ত করার বিষয়টি সঠিক নয় দাবি করে ওবায়দুল্লার বড় বোন সাবিকুন্নহার বলেন, ‘ওই মেয়েটি (স্কুল ছাত্রী) আমার ভাইয়ের ক্লাসমেট। মেয়েটির সঙ্গে আমার ভাই ফান করেছিল। এখন ফানের বিষয়টি সিরিয়াসভাবে নিয়েছে।’

প্রধান শিক্ষক শেখ ফরিদ আহমেদ বলেন, ‘নবম শ্রেণির ছাত্র ওবায়দুল্লাহ অনেক আগে থেকেই বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রী, শিক্ষকদের সঙ্গে উচ্ছৃঙ্খল আচরণ করতো। তার এই উচ্ছৃঙ্খল আচরণের জন্য শিক্ষকরা ঠিকমতো ক্লাস করাতে পারেন না। তাই বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্যদের নিয়ে তাকে এক মাসের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে।’

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পুলক কান্তি চক্রবর্তী বলেন, ‘বিষয়টি আমাকে কেউ জানায়নি। তবে ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করা হয়ে থাকলে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের এমন সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাই। ভবিষ্যতে যদি ওই ছাত্রের বিরুদ্ধে এ ধরনের অভিযোগ পাওয়া যায় তাহলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
এই নিউজ মোট   4992    বার পড়া হয়েছে


ইভটিজিং



বিজ্ঞাপন
ওকে নিউজ পরিবার
Shekh MD. Obydul Kabir
Editor
See More » 

প্রকাশক ও সম্পাদক : শেখ মো: ওবাইদুল কবির
ঠিকানা : ১২৪/৭, নিউ কাকরাইল রোড, শান্তিনগর প্লাজা (২য় তলা), শান্তিনগর, ঢাকা-১২১৭।, ফোন : ০১৬১৮১৮৩৬৭৭, ই-মেইল-oknews24bd@gmail.com
Powered by : OK NEWS (PVT) LTD.