01:08pm  Saturday, 25 May 2019 || 
   
শিরোনাম
 »  ডেভিড ক্যামেরনের পথে মেরও থেরেসা মে      »  নদী দূষণ প্রতিরোধে আমাদের স্বদিচ্ছাই যথেষ্ট"     »  ঠাকুরগাঁওয়ে কষ্টি পাথর নিয়ে আত্মগোপনে     »  গাইবান্ধায় বিপণী বিতানগুলোতে ঈদের বাজার জমে উঠতে শুরু করেছে     »  ২৩ দিন ধরে ছুটি ছাড়াই অনুপস্থিত শিবগঞ্জের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর      »  শিবগঞ্জেদু:স্থদের জন্য সোয়া ৬লাখ কেজি চাউল বরাদ্দ     »  প্রচন্ড তাপদাহ ও ইটভাটার বিষাক্ত ধোঁয়ায় ফ্রুটব্ররার আক্রমন; ধ্বংস হচ্ছে শিবগঞ্জর আম     »  ৫৪ লাখ টাকার ‘কুজা রাজার আমবাগান’টি মাত্র ৫৫ হাজার টাকায় নিলাম     »  সোনামসজিদে বিস্ফোরক মামলার আসামি গ্রেফতার     »  শিবগঞ্জে ৪দিন ধরে কলেজ ছাত্রী নিখোঁজ   



গাইবান্ধার বিভিন্ন এলাকায় দেখা গেছে ভারতের একটি হনুমান
২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৮ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪০



গাইবান্ধা প্রতিনিধি॥ গাইবান্ধা সদর উপজেলার ঘাগোয়া ইউনিয়নের তালতলা গ্রামে খাবারের সন্ধানে এক সপ্তাহ ধরে লোকালয়ের বড় বড় গাছে এবং বাড়ির ছাঁদে ও ঘরের চালে ঘুড়ে বেড়াচ্ছে এই হনুমানটি। বুধবার দুপুরে ওই গ্রামের জনৈক জয়নাল আবেদীনের টিনের চালায় হনুমানটিকে ঘোরাফেরা করতে দেখা যায়। এর আগে ফুলছড়ি উপজেলার কঞ্চিপাড়া ও সাঘাটা উপজেলাতেও এই হনুমানটিকে দেখা গেছে।

এদিকে লোকালয়ে চলে আসা হনুমানটিকে দেখতে ভিড় জমাচ্ছে শিশু-নারীসহ নানা বয়সী মানুষ। স্থানীয় লোকজন হনুমানটিকে কলা ও আপেলসহ নানা রকমের ফলমুল খাবারের জন্য সরবরাহ করছে বলে জানা গেছে।

বিভিন্ন সুত্র থেকে জানা গেছে, পঞ্চগড় জেলার ভারত সংলগ্ন সীমান্ত এলাকা থেকে পাথর নিয়ে আসা একটি ট্রাকে চড়ে ভারতের বনাঞ্চলে বসবাসকারি এই হনুমানটি এ এলাকায় চলে এসেছে। এখন সেটি বিভিন্ন এলাকায় ঘোরাফেরা করছে। হনুমানটি মানুষ দেখলেই এটি গাছের উঁচু ডালে অথবা কোনো বাসার ছাদে উঠে যাচ্ছে। শিশুরা ঢিল ছুড়ে এটিকে নানাভাবে উত্ত্যক্ত করছে বলে একাধিক ব্যক্তি অভিযোগ করেছেন।

এদিকে, এক সপ্তাহ ধরে হনুমানটি লোকালয়ে ঘোরাফেরা করলেও এখন পর্যন্ত এটিকে সুরক্ষা দিতে প্রাণিসম্পদ কিংবা বন বিভাগের কাউকে দেখা যায়নি বলে জানিয়েছে এলাকাবাসী। তবে এব্যাপারে জেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা আব্দুল লতিফ বলেন, ‘বিষয়টি আমি শুনেছি। তিনি এব্যাপারে ঢাকা হেড অফিসের সাথে কথা বলেছি যাতে এটাকে ধরে ঢাকা চিড়াখানায় পাঠানো যায়। তবে তিনি ওই এলাকার মানুষকে হনুমানটিকে উত্যক্ত না করার জন্য পরামর্শ দেন।
ফারুক হোসেন, গাইবান্ধা।

এই নিউজ মোট   1284    বার পড়া হয়েছে


ভিন্ন খবর



বিজ্ঞাপন
ওকে নিউজ পরিবার
Shekh MD. Obydul Kabir
Editor
See More » 

প্রকাশক ও সম্পাদক : শেখ মো: ওবাইদুল কবির
ঠিকানা : ১২৪/৭, নিউ কাকরাইল রোড, শান্তিনগর প্লাজা (২য় তলা), শান্তিনগর, ঢাকা-১২১৭।, ফোন : ০১৬১৮১৮৩৬৭৭, ই-মেইল-oknews24bd@gmail.com
Powered by : OK NEWS (PVT) LTD.