05:07pm  Friday, 24 May 2019 || 
   
শিরোনাম
 »  না ফেরার দেশে চলে গেলেন সাংবাদিক শামীম রেজা !     »  ঠাকুরগাঁওয়ে গৃহবধু হত্যা মামলার ৩ আসামী আটক     »  সংবাদ সম্মেলন ও প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান     »  পলাশবাড়ীতে বিক্ষোভ সমাবেশ ও অবস্থান কর্মসূচী     »  ফুলছড়ির গজারিয়া ইউনিয়ন পরিষদের উন্মুক্ত বাজেট সভা     »  গাইবান্ধায় ‘সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানসমূহের ভূমিকা’ শীর্ষক মতবিনিময় সভা     »  গাইবান্ধায় ক্রিকেট লীগ     »  গাইবান্ধায় জেলা প্রশাসনের ইফতার ও দোয়া মাহফিল     »  রংপুর সুগার মিলে শ্রমিক-কর্মচারীদের ‘ওভার টাইম’ কাজের ভাতা কর্তনের অভিযোগ     »  গোবিন্দগঞ্জে ধান কাটামাড়াই যন্ত্র কম্বাইন হারভেস্টার প্রদর্শনী ও কৃষক মাঠ দিবস   



'নিশ্চয়, মুমীন পুরুষের জন্য মুমীন নারী'
১২ মার্চ ২০১৯, ২৮ ফাল্গুন ১৪২৫, ৪ রজব ১৪৪০



সদ্য বিবাহিত কামরুল সাহেব। সারাজীবন সাধনা করেছেন যেন একটি ধার্মিক নারী তার ঘরে আসে যার যত্ন, কোমল আচরন, যার মহানুভবতা, শিষ্টাচারিতা, যার তাকওয়া মুখরিত করে রাখবে তার সংসার। নশ্বর এই জগত সংসারে তার ঘরটি হবে বেহেশতের একটি টুকরোর মত!

বিয়ের কিছুদিন পরঃ এক রাতে কামরুল তাহাজ্জুদ নামাজ পড়ার জন্য জাগলেন। দেখলেন বিছানাতে তার স্ত্রী নেই। তিনি তেমন অবাক হলেন না। ভাবলেন- হয়ত ওয়াশরুমেই গিয়ে থাকবে। তিনি ঘরের লাইট জ্বালালেন। লাইট জ্বালাতেই তিনি দেখলেন-নামাজের জায়গায় কেউ একজন নামাজরত অবস্থায়। একটু খেয়াল করেই বুঝতে পারলেন এটা তার স্ত্রী। মূহুর্তেই শিহরন বয়ে গেল উনার শরীরে। স্বপ্ন না তো? নিজেই নিজের গায়ে চিমটি কাটলেন। না, ব্যথা লাগল। তাহলে স্বপ্ন নয়, বাস্তব! তারপরও বিশ্বাস হয়না কামরুলের। আবারো ভাবলেন এটা কি চোখের ভুল? বিছানার দিকে দৃষ্টি দিলেন! না, বিছানা খালি…তাহলে বাস্তব! বাস্তব? তবুও তো মনে হচ্ছে কল্পনা! কিছুক্ষণ এভাবে সাতপাঁচ ভাবতে ভাবতে হঠাৎ একটি মৃদূ, কাপাঁ কন্ঠস্বর কানে এল। কান্না বিজড়িত কন্ঠে একটি মহিলা কন্ঠ দু'হাত তুলে বলছে- হে পরওয়ারদেগার! আমার হাতে যে আমানত তুলে দিয়েছেন তা যথাযথ ফেরত দেওয়ার শক্তি, সাহস দান করুন আমাকে'। বার বার একই কথা, একই বাক্য, একই আবেদন।

এবার কামরুল ভাবলেন- কি সেই আমানত? কি হতে পারে এটা যেটার জন্য এভাবে করুণ, অনুতপ্ত হৃদয় গভীর রাতে হাহাকার করতে পারে কারো অন্তর? না,আমাকে জানতে হবে!

নামাজ শেষ করতেই কামরুল সাহেবের চোখা-চোখি হয়ে গেল তার স্ত্রী। তার দৃষ্টি সংযত, অবনত। মাথা নিচু করে তার
স্ত্রী বললেন- আমাকে খুঁজছিলেন?
কামরুল জানালেন- নামাজ পড়তে উঠলাম।
স্ত্রী- আপনি অপেক্ষা করুন, আমি অজুর পানি নিয়ে আসছি।
কামরুল বললেন- একটি কথা জানার ছিল!
স্ত্রী - বলুন?
কামরুল - আপনি মুনাজাতে বার বার একটি আমানতের কথা বলছিলেন। এটার যাতে খিয়ানত না হয় সে জন্য করুণা ভিক্ষা করছিলেন মহান রবে'র দরবারে। জানতে পারি কি সেই আমানত?
স্ত্রী - একটু সময় নিয়ে জানতে চায়- আপনি কি আমার দ্বারা কষ্ট পেয়েছেন?
কামরুল- না, পায়নি। বলুন কি সেই আমানত?
এবার তার স্ত্রী জানালেন- সেই আমানত হলেন আপনি।
অবাক হয়ে কামরুল সাহেব বললেন- আমি?
স্ত্রী- জ্বী,আপনি'।
কামরুল- কি রকম?
স্ত্রী - রাসুল(সা) বলেছেন- 'দুনিয়াতে যখনই কোন স্ত্রী তার স্বামীকে কষ্ট দিতে থাকে তখনই জান্নাতের আয়তলোচনা হুরদের মধ্যে তার স্বামীর সম্ভাব্য স্ত্রী বলে উঠে, হে অভাগিনী, তাকে কষ্ট দিওনা। আল্লাহ তোমাকে ধ্বংস করুক। সে তোমার কাছে একজন মেহমান মাত্র। অচিরেই সে আমাদের কাছে চলে আসবে'।
কামরুল সাহেবের চোখে মুখে বিস্ময়ের ঘোর তীব্র থেকে তীব্রতর হল।

কামরুল ভাবলেন- এটা কি কোন মানবী? না, মানবী না। তাহলে কি? অতিমানবী? নাকি তার থেকেও বেশী কিছু? কামরুল মনে পড়ল কুরআনের সেই আয়াত- 'নিশ্চয়, মুমীন পুরুষের জন্য মুমীন নারী'। ভাবতে ভাবতে আবারও হঠাৎ একই কন্ঠের আওয়াজ- 'আপনার অজুর পানি বাইরে রাখা আছে'।

প্রবাস থেকে- মঈন উদ্দিন মোস্তফা, দাম্মাম, সৌদি আরব


এই নিউজ মোট   1020    বার পড়া হয়েছে


ধর্ম



বিজ্ঞাপন
ওকে নিউজ পরিবার
Shekh MD. Obydul Kabir
Editor
See More » 

প্রকাশক ও সম্পাদক : শেখ মো: ওবাইদুল কবির
ঠিকানা : ১২৪/৭, নিউ কাকরাইল রোড, শান্তিনগর প্লাজা (২য় তলা), শান্তিনগর, ঢাকা-১২১৭।, ফোন : ০১৬১৮১৮৩৬৭৭, ই-মেইল-oknews24bd@gmail.com
Powered by : OK NEWS (PVT) LTD.