07:57am  Tuesday, 19 Mar 2019 || 
   
শিরোনাম
 »  নিউজিল্যান্ডে বাংলাদেশিদের ভ্রমণে সতর্কবার্তা জারি     »  ডা. রাজন’র মরদেহে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি     »  ডিএসইসির ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পে রক্তের নমুনা সংগ্রহ     »  সন্ত্রাসবাদের অভিযোগে চীনে এ পর্যন্ত ১৩ হাজার মুসলিম গ্রেফতার     »  শিবগঞ্জে খালের পানিতে ভাসছে নবজাতকের মরদেহ     »  শিবগঞ্জে প্রিজাইডিং, সহকারী ও পোলিং এজেন্টদের প্রশিক্ষণ শুরু     »  উপজেলা নির্বাচন গাইবান্ধার ৫টি উপজেলায় শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ চলছে, ভোটারের উপস্থিতি কম     »  ওয়ালটন বিশ্বমানের পণ্য তৈরি করে: এনবিআর চেয়ারম্যান     »  দ্বিতীয় ধাপে ভোটারের উপস্থিতি বেশি ছিল     »  মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক একটি নতুন ছবিতে বন্যা মির্জা   



তোমার সন্তানের জন্য তোমার যেমন, আমার জন্যও আমার মা'র তেমনি কষ্ট হয়
১৩ মার্চ ২০১৯, ২৯ ফাল্গুন ১৪২৫, ৫ রজব ১৪৪০



প্রবাস থেকে: আমরা অনেক সময় ব্যস্ততায় অনেক দায়িত্ব ভূলে যাই। এতে করে আমাদের পরিবারের গুরুত্বপূর্ন ব্যাক্তিটিও অবহেলিত হয় প্রাপ্ত অধিকার থেকে। অনেক সময় মা অথবা বাবাও কষ্ট পায় যাতে করে আমাদের দুনিয়া ও আখেরাতের সুফল থেকে বঞ্চিত হতে হয়। তবে আমরা একটু সচেতন ও দায়িত্ববোধ রাখলেই অনেককে খুশি রাখতে পারি এবং নিজেও সুখি হতে পারি। এমন-ই একটি বাস্তব ঘটনা আপনাদের জন্য পাঠিয়েছেন সৌদি আরবের দাম্মাম থেকে মঈন উদ্দিন মোস্তফা।

বাংলাদেশের কোন এক গ্রামে এক সন্তান আর বাবা-মা’র খুব সুখি একটি পরিবার। তখন সংসারের ছেলে সন্তানটির বয়স ৪/৫। যৎ সামান্য কৃষি জমি আর বাবার এনজিওতে একটি চাকরির আয় থেকে তারা যথেষ্ট সুখি। হঠাৎ করেই সুন্দর এই সংসারটিতে নেমে আসে অমানিসার কালো ছায়া। মারা যায় সংসারের পুরুষ কর্তা। পিতৃহারা হয় বাচ্চা আর স্বামী হারা হয় স্ত্রী।  একমাত্র ছেলে শিক্ষিত করার জন্য যুদ্ধে নামেন মা। যুদ্ধে সফলও হন। কিন্তু ছেলে উপজেলার কলেজ থেকে বিএ পাশ করে মার অনুমতি ছাড়াই প্রেমের টানে বিয়ে করে বৌকে নিয়ে শহরের কোন এক স্থানে ফ্লাট নিয়ে খুব আনন্দে থাকতে শুরু করল । বৌ এর ভালোবাসায় সে সবকিছুই ভুলে যেতে লাগল। এরই মধ্যে পেরিয়ে যায় প্রায় ১০টি বছর। আবার তাদের সংসারেও এখন দুটি সন্তান। একজনের বয়স ৬ আর অন্যজনের ৮বছর।

একদিন শহরে কোথাও মেলা হচ্ছিল । তাদের ছোট বাচ্চাটি বায়না ধরে বসল, আব্বু!!আব্বু!! আজকে কিন্তু আমাকে মেলায় নিয়ে যেতে হবে । তো তারা সবাই একত্রে মেলায় গেল । মেলায় চলাকালিন একসময় তার ছোট বাচ্চাটি হারিয়ে যায় । স্বামী স্ত্রী দুজনেই খুব হতাশা হয়ে পড়ে । যখন তারা তাদের মেয়েটিকে খুঁজে না পেয়ে স্ত্রী কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে । স্বামীকে জড়িয়ে ধরে বলে তুমি যেমন করেই হউক আমার বুকের মানিক কে এনে দাও আমার কাছে । আমি ওকে ছাড়া এক মুহুত্বও থাকতে পারব না । স্বামী কিছু না করতে পেরে শেষে ঘটনাটি পুলিশকে জানায়। পুলিশ অনেক খুঁজাখুঁজির পর তাদের বাচ্চাকে তাদের কাছে ফিরিয়ে দেয় । বাচ্চা কে পেয়ে তারা দুজনই খুব খুশি হয় । কিন্তু স্বামীর মনে পরে তার মায়ের কথা।

সন্তান হাড়ানোর ঘটনায় স্ত্রী’র এমন করাটায় বার-বার তার মনে পড়ে মায়ের কথা। এভাবেই কষ্ট নিয়ে মাস শেষে অফিস থেকে বেতন তুলে চাকরি ছেড়ে দিয়ে আনন্দে বাসায় যায়। বেতন পেয়ে কোন বাজার না নিয়ে যাওয়ায় স্ত্রী জানতে চায় বাসার মাসিক বাজার কেন আনেনি। স্বামী জানায় আগামী কাল গ্রামের বাড়ি যাব। বাচ্চারাসহ সবাই খুব খুশি হয়।

কথা মতো সকালেই তাদের বাচ্চাসহ নিয়ে গ্রামের বাড়ির দিকে রওনা হয় । মাঝ পথে স্ত্রী প্রশ্ন করে উঠল, আমরা কেন গ্রামে যাচ্ছি ,,,? এমন কিছু তুমি বলনিতো! স্ত্রীর প্রশ্নের জবাবে স্বামী জানায়, তুমি তো তোমার মেয়েটিকে ছাড়া একটি মুহুর্তও থাকতে পারো না । আর আমি আজ ১০বছর হলো আমার মায়ের কাছ থেকে দূরে এসে তোমাকে নিয়ে আছি। তাহলে এবার একটু ভাবো আমার দুঃখিনী মায়ের মনের কি অবস্থা!! তাই আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমিও আজ থেকে আমার বৃদ্ধা মায়ের কাছেই থাকব তার সেবা যত্ন করব । তাকে ছেড়েও আর কখনও দূরে যাব না......। এটাই যেন হয় সব সন্তানের বাবা মায়ের প্রতি ভালোবাসা

মঈন উদ্দিন মোস্তফা, দাম্মাম, সৌদি আরব।


এই নিউজ মোট   384    বার পড়া হয়েছে


মনোকথা



বিজ্ঞাপন
ওকে নিউজ পরিবার
Shekh MD. Obydul Kabir
Editor
See More » 

প্রকাশক ও সম্পাদক : শেখ মো: ওবাইদুল কবির
ঠিকানা : ১২৪/৭, নিউ কাকরাইল রোড, শান্তিনগর প্লাজা (২য় তলা), শান্তিনগর, ঢাকা-১২১৭।, ফোন : ০১৬১৮১৮৩৬৭৭, ই-মেইল-oknews24bd@gmail.com
Powered by : OK NEWS (PVT) LTD.