04:55am  Wednesday, 24 Apr 2019 || 
   
শিরোনাম
 »  সরকারি ভূমি দখল করে ব্যবসা করা যাবে না     »  দিনাজপুরে পরিবেশের পরমবন্ধু ৯টি শকুন অবমুক্ত     »  খালেদা জিয়া প্যারোল চাইলে শেখ হাসিনা জামিন দিবেন     »  নির্যাতন সয়তে না পেরে ছয় তলার কার্নিশ বেয়ে নামার চেষ্টা গৃহকর্মীর!     »  সারাবিশ্বের মন্ত্রীরা এখন বাংলাদেশী মন্ত্রীদের পরামর্শ চায়     »  তোমরা কি শেখ হাসিনাকে বিচার দিবা? উত্তরে বাচ্চারা সমস্বরে বলে 'জ্বি'      »  অমুসলিমদের উপাসনালয় রক্ষায় ওমর (রা.) এর ফরমান     »  প্রথম বাংলাদেশি রোবট 'লি' হাঁটে ও কথা বলে     »  তিন বছর পর রাজ চক্রবর্তীর পরিচালনায় জিৎ-কোয়েল      »  মার্কিন নিষেধাজ্ঞা অগ্রাহ্য করে ইরানের পাশে চীন-তুরস্ক   



লাইফ সাপোর্টেই নুসরাতের অস্ত্রোপচার হলো
৯ এপ্রিল ২০১৯, ২৬ চৈত্র ১৪২৫, ২ শাবান ১৪৪০



মঙ্গলবার ঢাকা মে‌ডি‌কেল ক‌লে‌জ হাসপাতালের লাইফ সাপোর্টেই ফেনীর সোনাগাজীতে পরীক্ষাকেন্দ্রে আগুনে দগ্ধ মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির শরীরে অস্ত্রোপচার হ‌য়ে‌ছে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন সমকালকে এতথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, মেয়েটির ফুসফুস কার্যকর করতে লাইফ সাপোর্টে থাকা অবস্থাতেই তার শরীরে অস্ত্রপচার করা হয়েছ। সকাল সোয়া ১০টা থেকে প্রায় দুই ঘণ্টা ধরে এই অস্ত্রোপচার হয়। তার অবস্থার উন্নতি না হলেও আগের চেয়ে সামান্য কিছুটা ভালো।

অস্ত্রোপচার শে‌ষে দুপু‌রে সংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন ঢাকা মে‌ডি‌কেল ক‌লে‌জের প‌রিচালক ব্রি‌গে‌ডিয়ার না‌সিরউদ্দীন এবং বার্ন ও প্লা‌স্টিক সার্জা‌রির বিভাগীয় প্রধান আবুল কালাম।

সিঙ্গাপুরের চিকিৎসকদের পরামর্শে লাইফ সাপোর্টে রেখেই নুসরাতের শরীরে অস্ত্রোপচার হয়েছে বলে জানান তারা।

না‌সিরউদ্দীন ব‌লেন, আমরা সব সময় প্রত্যাশা ক‌রি রো‌গী ফি‌রে আস‌বে। এ ক্ষে‌ত্রেও একই প্রত্যাশা ক‌রি। তিনি বলেন, দগ্ধ ছাত্রীর শরী‌রে বেশ কিছু জ‌টিলতা দেখা দি‌য়ে‌ছে। রক্ত ও ফুসফুসে সংক্রমণ ছাড়াও তার কিড‌নি‌তে কিছুটা সমস্যা দেখা দি‌য়ে‌ছে। মেয়েটিকে সর্বোচ্চ সেবা দেওয়ার চেষ্টা করছি।

আবুল কালাম ব‌লেন, ফুসফুস‌কে স‌ক্রিয়তা দি‌তে অস্ত্রোপচার‌ করা হ‌য়ে‌ছে।  আজ রো‌গী কিছুটা ভালো। সিঙ্গাপু‌রের চি‌কিৎসক‌দের পরাম‌র্শে অস্ত্রোপচার‌টি করা হয়।

গত শনিবার সকাল ৯টার দিকে আলিম পর্যায়ের আরবি প্রথম পত্র পরীক্ষা দিতে সোনাগাজীর ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে যান ওই ছাত্রী। এরপর কৌশলে তাকে পাশের ভবনের ছাদে ডেকে নেওয়া হয়। সেখানে ৪/৫ জন বোরকা পরিহিত ব্যক্তি ওই ছাত্রীর শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে তার শরীরের ৮০ শতাংশ পুড়ে যায়।

পরে ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে তার স্বজনরা প্রথমে সোনাগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে ফেনী সদর হাসপাতালে পাঠান। সেখান থেকে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে পাঠানো হয়।

রোববার তার চিকিৎসায় ৯ সদস্যের বোর্ড গঠন করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পরীক্ষা কেন্দ্রে ছাত্রীর ওপর এমন নির্মমতায় উদ্বেগ প্রকাশ করে সার্বিক চিকিৎসার দায়িত্ব নেওয়ার কথা বলেছেন। পাশাপাশি জড়িতদের গ্রেফতারেরও নির্দেশ দিয়েছেন।

সোমবার নুসরাত জাহান রাফি ‘ডাইং ডিক্লারেশন’ (মৃত্যুশয্যায় দেওয়া বক্তব্য) দেন। নুসরাত তার বক্তব্যে বলেছেন, ওড়না দিয়ে হাত বেঁধে তার শরীরে আগুন দেওয়া হয়। আগুনে ওড়না পুড়ে গেলে তার হাত মুক্ত হয়। বোরকা, নেকাব ও হাতমোজা পরা যে চার নারী তার শরীরে আগুন ধরিয়ে দেন, তাদের একজনের নাম সম্পা বলে জানান নুসরাত।

এর আগে গত ২৭ মার্চ ওই ছাত্রীকে নিজ কক্ষে নিয়ে শ্লীলতাহানির অভিযোগে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদদৌলাকে আটক করে পুলিশ। ওই ঘটনার পর থেকে তিনি কারাগারে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর মা শিরিন আক্তার বাদী হয়ে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা করেন।

ওই ছাত্রীর স্বজনরা বলেন, ‌২৭ মার্চ মাদ্রাসার অধ্যক্ষ এস এম সিরাজ উদ দৌলা নুসরাতকে নিজের কক্ষে ডেকে নিয়ে শ্নীলতাহানি করেন। ওই ঘটনায় থানায় মামলা করেন তার মা। ওই মামলায় অধ্যক্ষ কারাগারে রয়েছেন। মামলা তুলে নিতে অধ্যক্ষের লোকজন হুমকি দিয়ে আসছিল বারবার।

তারা জানান, আলিম পরীক্ষা চললেও আতঙ্কে স্বজনরা পরীক্ষা কেন্দ্রের কক্ষ পর্যন্ত পৌঁছে দিতেন। মামলা তুলে না নেওয়াতেই ক্ষিপ্ত হয়ে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা করা হয় নুসরাতকে।

ছাত্রীর বড় ভাই মাহমুদুল হাসান নোমান বলেন, তার বোনের শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেওয়া পূর্বপরিকল্পিত। অন্যান্য দিন তিনি বোনকে কেন্দ্রের কক্ষ পর্যন্ত পৌঁছে দিলেও শনিবার তাকে কেন্দ্রেই ঢুকতে দেওয়া হয়নি। মাদ্রাসার নিরাপত্তাকর্মী মোস্তাফা বাধা দেন তাকে। এর আগে সকালে ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক আফসার উদ্দীন ফোনে মামলা তুলে নিতে হুমকি দেন।

তিনি বলেন, এ ছাড়া নিয়মিত হুমকি তো ছিলই। এসব হুমকিতেও মামলা তুলে নিতে রাজি না হওয়ায় পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী তার বোনকে হত্যাচেষ্টা করা হয়েছে।
এই নিউজ মোট   2952    বার পড়া হয়েছে


স্বাস্থ্য কথা



বিজ্ঞাপন
ওকে নিউজ পরিবার
Shekh MD. Obydul Kabir
Editor
See More » 

প্রকাশক ও সম্পাদক : শেখ মো: ওবাইদুল কবির
ঠিকানা : ১২৪/৭, নিউ কাকরাইল রোড, শান্তিনগর প্লাজা (২য় তলা), শান্তিনগর, ঢাকা-১২১৭।, ফোন : ০১৬১৮১৮৩৬৭৭, ই-মেইল-oknews24bd@gmail.com
Powered by : OK NEWS (PVT) LTD.