01:04am  Saturday, 25 May 2019 || 
   
শিরোনাম
 »  ডেভিড ক্যামেরনের পথে মেরও থেরেসা মে      »  নদী দূষণ প্রতিরোধে আমাদের স্বদিচ্ছাই যথেষ্ট"     »  ঠাকুরগাঁওয়ে কষ্টি পাথর নিয়ে আত্মগোপনে     »  গাইবান্ধায় বিপণী বিতানগুলোতে ঈদের বাজার জমে উঠতে শুরু করেছে     »  ২৩ দিন ধরে ছুটি ছাড়াই অনুপস্থিত শিবগঞ্জের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর      »  শিবগঞ্জেদু:স্থদের জন্য সোয়া ৬লাখ কেজি চাউল বরাদ্দ     »  প্রচন্ড তাপদাহ ও ইটভাটার বিষাক্ত ধোঁয়ায় ফ্রুটব্ররার আক্রমন; ধ্বংস হচ্ছে শিবগঞ্জর আম     »  ৫৪ লাখ টাকার ‘কুজা রাজার আমবাগান’টি মাত্র ৫৫ হাজার টাকায় নিলাম     »  সোনামসজিদে বিস্ফোরক মামলার আসামি গ্রেফতার     »  শিবগঞ্জে ৪দিন ধরে কলেজ ছাত্রী নিখোঁজ   



কারিনাকে সাইফের সঙ্গে দেখে শহিদ কাপুরের কষ্ট হয়েছিল
১১ মে ২০১৯, ২৮ বৈশাখ ১৪২৬, ৫ রমজান ১৪৪০



এক সময় জনসম্মুখে চুটিয়ে প্রেম করেছেন কারিনা কাপুর ও শহিদ কাপুর। কারিনার সঙ্গে হঠাৎই সম্পর্কের বিচ্ছেদের পর অনেকটাই ভেঙে পড়েন শহিদ। নিজেদের মধ্যে ঠিক কী নিয়ে সমস্যা তৈরি হয়েছিল তা নিয়ে অবশ্য এখন পর্যন্ত প্রকাশ করেননি তারা। শহিদ-কারিনার এই দূরত্বের ফাঁকে ঢুকে পড়েছিলেন সাইফ আলি খান।  সম্পর্ক ভাঙার পর ‘প্রাক্তন’ কারিনাকে সাইফের সঙ্গে দেখে কি কষ্ট পেয়েছিলেন শহিদ? সম্প্রতি এ প্রসঙ্গে শহিদের দেওয়া পুরনো একটি সাক্ষাৎকার প্রকাশ্যে এসেছে।

সাক্ষাৎকারে শহিদ বলেছেন, ‘আমি যদি বলি আমার কিছুই যায় আসেনি, তাহলে মিথ্যা বলা হবে।  আদপে আমিও তো মানুষ।  কারিনাকে সাইফের সঙ্গে দেখে বা এ ধরনের খবরে আমারও কষ্ট হয়েছিল। যদিও তখন আমার কিছু করার ছিল না।  আমাকে বাস্তবের সঙ্গে মানিয়ে নিতেই হতো।  এর মুখোমুখি হতেই হতো।  আমি শুধুই ভালো স্মৃতিগুলোই মনে রাখতে পারি এবং ভালো থাকার চেষ্টা করতে পারি।’

আরও একটি সাক্ষাৎকারে শহিদ জানিয়েছিলেন, ‘টানা একটি মাস ভীষণ কষ্টের মধ্যে কেটেছিল। আমার কাছে মাত্র দুটো অপশন ছিল। এসব থেকে বেরিয়ে আসা আর মিডিয়ার সামনে এসব নিয়ে কোনো কথা না বলা।  এ সমস্ত প্রশ্নের উত্তর দিতে আমার যে কষ্ট হতো সেটা এড়িয়ে চলার জন্য শুধুমাত্র সিনেমার (জাব উই মেট) প্রচারে মন দেওয়া। যখন এটা ঘটেছিল তার তিন সপ্তাহের মধ্যে ছবিটি মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল।’

বিচ্ছেদের অনেক পরে গিয়ে কারিনাকে সঙ্গে ‘উড়তা পাঞ্জাব’ ছবিতে অভিনয় করা প্রসঙ্গে শহিদ বলেন, ‘সবকিছু ভুলে এই ছবিতে কাজ করা আমার প্রয়োজন ছিল বলে আমার মনে হয়েছে। কারণ ছবিতে ( উড়তা পাঞ্জাব) আমার চরিত্রটা ভীষণই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। আবারও কারিনার সঙ্গে কাজ করা ভীষণই অস্বস্তিকর ছিল। তবে অভিনয়টা আমার পেশা সেটা মেনে নিয়েই কাজ করি।’

আরও একটি সাক্ষাৎকারে শহিদ বলেন, ‘আমাদের সম্পর্ক ভাঙার বিষয়টা প্রকাশ্যে বলার কিছু নয়, এটা একান্তই দুইজন ব্যক্তির বিষয়। সকলের এটা নিয়ে অনেক প্রশ্ন থাকলেও কিছু করার নেই।’

শহিদের সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়ে কারিনা এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘আমাদের সম্পর্কটা হয়ত সেই পর্যায়ে ছিল না। এটা এক্কেবারেই আমার ক্যারিয়ারের শুরু দিকের ঘটনা। একটা ছবিতে একসঙ্গে কাজ করতে গিয়ে আমরা একে অপরের প্রেমে পড়ি। আমরা বন্ধুর থেকে হয়ত একটু বেশিই এগিয়েছিলাম সেটা ঠিক। এক্কেবারেই অল্পবয়সের সম্পর্কের মতোই ছিল আমাদের সম্পর্কটা। একসঙ্গে সিনেমা দেখা, বেড়াতে যাওয়া এইরকমই। আমরা লুকিয়ে লুকিয়ে একে অপরে সঙ্গে সিনেমা দেখতে যেতাম। শহিদের সঙ্গে থাকতে আমার বেশ ভালোই লাগতো।’

শহিদের সঙ্গে সম্পর্ক ভাঙার পর কাজ করাটা কি অস্বস্তিকর ছিল? এ প্রশ্নের উত্তরে কারিনা বলেছিলেন, ‘এধরনের একটা অস্বস্তিকর মানসিক অবস্থার মধ্যে শুটিং করা সত্যিই কঠিন। তবে কাজটা কাজই, সেখানে ব্যক্তিগত জীবনের প্রভাব পড়া উচিত নয়।  কাজের মধ্যে এ নিয়ে কোনো কথা কেউই বলতেন না।’

এ দুই তারকার বিচ্ছেদের পেছনে নেটিজেনদের অনেকেই দাঁড় করিয়েছেন নানা কারণ। কেউ বলেন, শহিদের সহ-অভিনেত্রী অমৃতা রাওয়ের সঙ্গে  ঘনিষ্ঠতা মেনে নিতে পারেননি কারিনা।  অন্যদিকে কারিনার অত্যাধিক ধরে-বেঁধে রাখা পছন্দ হচ্ছিল না শহিদের।

বর্তমানে শহিদ ও কারিনা দুজনেই তাদের ব্যক্তিগত জীবনে অনেক সুখী। শহিদ জমিয়ে সংসার করছেন মীরা রাজপুতের সঙ্গে ফুটফুটে দুই সন্তানকে নিয়ে।  আবার কারিনা সাইফ ও তাদের একমাত্র সন্তান তৈমুরকে নিয়ে ভীষণ খুশি।
এই নিউজ মোট   432    বার পড়া হয়েছে


বলিউড



বিজ্ঞাপন
ওকে নিউজ পরিবার
Shekh MD. Obydul Kabir
Editor
See More » 

প্রকাশক ও সম্পাদক : শেখ মো: ওবাইদুল কবির
ঠিকানা : ১২৪/৭, নিউ কাকরাইল রোড, শান্তিনগর প্লাজা (২য় তলা), শান্তিনগর, ঢাকা-১২১৭।, ফোন : ০১৬১৮১৮৩৬৭৭, ই-মেইল-oknews24bd@gmail.com
Powered by : OK NEWS (PVT) LTD.