06:19pm  Tuesday, 22 Oct 2019 || 
   
শিরোনাম
 »  ২২ অক্টোবর; আজকের দিনে জন্ম-মৃত্যুসহ যত ঘটনা     »  সৌদির ধরপাকড়ে বিপাকে প্রবাসীরা, আরও ৭০ বাংলাদেশিকে ফির‌তে হ‌য়ে‌ছে     »  মা কে বিয়ে করায় সৎ বাবাকে তুলেই নিয়ে গেল ছেলে     »  পঞ্চগড়ে গলির রাস্তায় পাওয়া সেই কন্যাশিশুটির মাকে ঠাকুরগাঁওয়ে পাওয়া গেছে     »  বাংলাদেশ বিনির্মাণে শেখ হাসিনার কোন বিকল্প নেই     »  বোরহানউদ্দিনের সেই বিপ্লবসহ তিনজন কারাগারে     »  ভোলাহাট থানায় চলমান সকল সমস্যা নিয়ে আলোচনা     »  ঝালকাঠিতে নবাগত অতিঃ পুলিশ সুপারকে জেলা পুলিশের ফুলেল শুভেচ্ছা     »  শাহজালালে ২৯৯ যাত্রী নিয়ে সৌদি বিমানের জরুরি অবতরণ     »  খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করার অনুমতি মিলেছে    



ছেলের জন্য ৪৪ বছর রোজা পালন করা সেই মা মারা গেলেন
০৯ জুলাই ২০১৯, ২৫ আষাঢ় ১৪২৬, ০৫ জিলকদ ১৪৪০



সন্তানকে ফিরে পেতে আল্লাহ তায়ালার সন্তুষ্টির জন্য সারাবছর রোজা রাখার মানত করেছিলেন মা ভেজিরন নেছা। সৃষ্টিকর্তার অশেষ মেহেরবানীতে দেড়মাস পর বাড়ি ফিরে আসেন সন্তান। সেইদিন থেকে টানা ৪৪ বছর ধরে রোজা পালন করেছিলেন ভেজিরন। গতকাল সোমবার বিকেলে বার্ধক্যজনিত কারণে নিজ বাড়িতে মৃত্যু হয় তার।

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার বাজার গোপালপুর বিকেল পাঁচটার দিকে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন ভেজিরন নেছা।  মৃত্যুর সময় ৩ ছেলে ও ২ মেয়ে রেখে গেছেন তিনি।

জানা গেছে, ১৯৭৫ সালে তার বড় ছেলে শহিদুল ইসলাম হারিয়ে যান।  ১১ বছরের সে সন্তানকে বিভিন্ন স্থানে খুঁজে বেড়ান তিনি। কিন্তু না পেয়ে পাগলপ্রায় হয়ে পড়েন। উপায়য়ন্তর না পেয়ে মহান আল্লাহর দরবারে আরজি করেন তিনি। এলাকার মসজিদ ছুঁয়ে প্রতিজ্ঞা করেন, সন্তান ফিরে এলে সৃষ্টিকর্তার সন্তুষ্টির জন্য সারা বছর রোজা পালন করবেন।

দেড়মাস পর ফিরে আসেন শহিদুল ইসলাম। সেই থেকে টানা ৪৪ বছর বারোমাস রোজা পালন করেছেন ভেজিরন নেছা।

এলাকাবাসী জানান, অভাব অনটনের পাশাপাশি বয়সের ভারে নুয়ে পড়লেও ভেজিরন নেছা সন্তানের কল্যাণে প্রতিজ্ঞা ভঙ্গ করেননি।

ওরা কয় তোর নিস্তার নেই; শাহীন মারা গেছে ভেবে ফেলে যায় দুর্বৃত্তরা


এই নিউজ মোট   1404    বার পড়া হয়েছে


ওকে নিউজ স্পেশাল



বিজ্ঞাপন
ওকে নিউজ পরিবার
Shekh MD. Obydul Kabir
Editor
See More » 

প্রকাশক ও সম্পাদক : শেখ মো: ওবাইদুল কবির
ঠিকানা : ১২৪/৭, নিউ কাকরাইল রোড, শান্তিনগর প্লাজা (২য় তলা), শান্তিনগর, ঢাকা-১২১৭।, ফোন : ০১৬১৮১৮৩৬৭৭, ই-মেইল-oknews24bd@gmail.com
Powered by : OK NEWS (PVT) LTD.