09:26pm  Sunday, 18 Aug 2019 || 
   
শিরোনাম



বাসি খাবার ফেলে দেওয়ায় গৃহবধূকে পুড়িয়ে হত্যা চেষ্টা
২৭ জুলাই ২০১৯, ১২ শ্রাবণ ১৪২৬, ২৩ জিলকদ ১৪৪০



ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলার কোদালিয়া শহীদনগর ইউনিয়নের ছাগলদী গ্রামে বাসি খাবার ফেলে দেওয়ায় গৃহবধূকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা করেছে স্বামী-শাশুড়ি বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার সকালে ছাগলদী গ্রামের কাওসার মুন্সীর স্ত্রী কাদরিয়া (২১) আগের দিনে রান্না করা বাসি খিচুরি ফেলে দিয়ে হাড়ি পাতিল পরিষ্কার করে ফেলে। খিচুরি ফেলে দেওয়ায় শাশুড়ি সবজান খাতুন গৃহবধূ কাদরিয়া বেগমকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করে। এতে বউ ও শাশুড়ি উভয়ের মধ্যে তুমুল ঝগড়া বাধে। এ সময় স্বামী কাওসার মুন্সি ক্ষিপ্ত হয়ে স্ত্রী কাদরিয়া বেগমকে মারধর করে এবং এক পর্যায়ে কাওসার ও তার মা কাদরিয়া বেগমের সালোয়ার কামিজে আগুন ধরিয়ে দেয়। আগুন জ্বলে উঠলে কাদরিয়া বেগম বাঁচার জন্য চিৎকার শুরু করে।

কাদরিয়ার চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা দৌড়ে এসে আগুন নেভাতে সক্ষম হয়। ততোক্ষণে কাদরিয়া বেগমের শরীরের নিম্নাংশের বেশির ভাগ অংশ পুড়ে যায়। কাদরিয়াকে উদ্ধার করে দ্রুত নগরকান্দা হাসপাতালে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ফরিদপুরে মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। বর্তমানে তিনি ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

জানা যায়, ছাগলদী গ্রামের বেলায়েত শেখের কন্যা কাদরিয়া বেগমকে সালথা উপজেলার খারদিয়া গ্রামে বিয়ে দেয় এবং সে ঘরে একটি সন্তানও রয়েছে। অন্যত্র স্বামীর সংসার করা অবস্থায় কাওসার কাদরিয়ার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে এবং কাদরিয়াকে তার স্বামীর কাছ থেকে ছাড়িয়ে আনে। এরপর বিয়ে করতে রাজি না হওয়ায় কাদরিয়া বেগম বিয়ের দাবিতে কাওসারের বাড়িতে অনশন করে। পরে এলাকাবাসীর চাপে কাদরিয়াকে বিয়ে করতে রাজি হয় কাওসার মুন্সি। দেড় মাস আগে কাওসার কাদরিয়াকে বিয়ে করে নিজ সংসার শুরু করে। বিয়ের দেড় মাস পর কাদরিয়াকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা চালায় স্বামী কাওসার ও শাশুড়ি সবজান খাতুন।

কাদরিয়া বেগমের পিতা বেলায়েত শেখ অভিযোগ করে বলেন, 'কাউসারের মা সবজান বেগম একজন ভয়ানক নামে এলাকায় পরিচিত। মা-ছেলে দুইজনে মিলে আমার মেয়েকে হত্যার উদ্দেশ্যে গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয়।' কাওসারসহ পরিবারের সদস্যরা পলাতক থাকায় তাদের বক্তব্য জানা যায়নি।

নগরকান্দা থানার ওসি (তদন্ত) মিরাজ হোসেন বলেন, 'খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ঘটনার সত্যতা পেয়েছি। আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে। এ ঘটনায় নগরকান্দা থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।'

এই নিউজ মোট   492    বার পড়া হয়েছে


নারী নির্যাতন



বিজ্ঞাপন
ওকে নিউজ পরিবার
Shekh MD. Obydul Kabir
Editor
See More » 

প্রকাশক ও সম্পাদক : শেখ মো: ওবাইদুল কবির
ঠিকানা : ১২৪/৭, নিউ কাকরাইল রোড, শান্তিনগর প্লাজা (২য় তলা), শান্তিনগর, ঢাকা-১২১৭।, ফোন : ০১৬১৮১৮৩৬৭৭, ই-মেইল-oknews24bd@gmail.com
Powered by : OK NEWS (PVT) LTD.