10:10pm  Saturday, 24 Aug 2019 || 
   
শিরোনাম
 »  শিবগঞ্জ উপজেলা-ইউপি চেয়ারম্যানদের সাথে মুক্তিযোদ্ধাদের মতবিনিময়     »  শিবগঞ্জে হোটেলের বর্জ্যে জন্ম নিচ্ছে মশা ও দূষিত হচ্ছে পরিবেশ     »  সুন্দরগঞ্জে বিনাধান-১৯ কর্তন ও মাঠ দিবস      »  সুন্দরগঞ্জে ফকিরপাড়া মসজিদের ছাদ ঢালায়ের উদ্বোধন      »  গাইবান্ধায় ধানের চারা ও বীজ বিতরণ      »  গোবিন্দগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের নতুন কমিটি গঠন     »  ‘বঙ্গবন্ধু মানেই সততা ও দেশপ্রেম’ -নজরুল ইসলাম বাবু এমপি     »  ঝালকাঠিতে সাতদিন ব্যাপী বৃক্ষরোপন অভিযান, ফলদ ও বৃক্ষ মেলা ২০১৯ উদ্বোধন      »  ইসলাম ধর্ম নিয়ে কটূক্তি করায় হিন্দু যুবককে কারাগারে পাঠিয়েছে     »  জিম করছেন নুসরাত ফারিয়া   



শিক্ষক সংকটের কারণে খুঁড়িয়ে চলছে কুয়াকাটার খাজুরা প্রাথমিক বিদ্যালয়
৩ আগস্ট ২০১৯, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৬, ১ জিলহজ ১৪৪০



প্রাথমিক স্তরের শিক্ষা বিস্তারের লক্ষে পরীক্ষামূলকভাবে প্রাথমিক খাজুরা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়টিকে অষ্টম শ্রেণিতে উন্নীত করেছে সরকার। কিন্তু শিক্ষক সংকটের কারণে শিক্ষা ব্যবস্থা ঝিমিয়ে পড়ার শঙ্কা দেখা দিয়েছে। দ্রুত শিক্ষক শূন্যতা পূরণের দাবি জানিয়েছেন শিক্ষার্থীসহ অভিভাবকরা। মাত্র চারজন শিক্ষক দিয়ে চলছে পর্যটন নগরী কুয়াকাটার অদূরে খাজুরা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রাথমিক স্তর থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের পাঠদান কার্যক্রম। এর ফলে রীতিমত হিমসিম খেতে হচ্ছে শিক্ষকদের।

জানা যায়, ২০১২ সালে ৫ম শ্রেণি থেকে ৮ম শ্রেণিতে এ বিদ্যালয়টি উন্নীত করা হয়। বর্তমানে শিক্ষার্থীর সংখ্যা রয়েছে ৩২০ জন। বিদ্যালয়টিতে ৭ জন শিক্ষকের পরিবর্তে রয়েছে মাত্র চারজন শিক্ষক। এর মধ্যে প্রধান শিক্ষক প্রায়ই থাকেন অফিসিয়াল কাজে ব্যস্ত। এর ফলে কাঙ্খিত শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

ওই বিদ্যালয় গিয়ে দেখা যায়, প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে শুরু হয় প্রাথমিক স্তরের শিশু শ্রেণি থেকে অষ্টম শ্রেণির পাঠদান কার্যক্রম। তৃতীয় শ্রেণি, চতুর্থ শ্রেণি ও পঞ্চম শ্রেণির পাঠদান শুরু হয় বেলা ১২ টায়। প্রধান শিক্ষকসহ সহকারী আরও তিন শিক্ষক একযোগে শিক্ষার্থীদের পাঠদান দিচ্ছেন। প্রায় দেড় বছর ধরে এভাবে চলছে শিক্ষার্থীদের পাঠদান।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শাহাবুদ্দিন জানান, শিক্ষক সংকটের বিষয় একাধিকবার উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করলেও এখন পর্যন্ত কোন সমাধান পাচ্ছি না। আমার স্কুলে বর্তমানে ৪ জন শিক্ষক আছে। এত স্বল্প শিক্ষক দিয়ে সঠিকভাবে পাঠদান সম্ভব হচ্ছে না বলে তিনি জানিয়েছেন।

বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ছালাম গাজী জানান, শিক্ষক সংকটের ব্যাপারে শিক্ষা ডিপার্টমেন্টের বিভিন্ন দপ্তরে বার বার যোগাযোগ করেও কোন ফল পাইনি। উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা শুধু 'দিচ্ছি দিব' বলে এখন পর্যন্ত আশ্বাস দিয়ে আসছে।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) আবুল বাশার জানান, তিনি শিক্ষক সংকটের বিষয়টি অবগত আছে। তবে সমন্বয় সভায় ওই বিদ্যালয় দু’জন শিক্ষক দেয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হয়েছে। জেলা অফিসে অবহিত করা হয়েছে। আশা করি দুই এক দিনের মধ্যে এর সমাধান হবে বলে তিনি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।
এই নিউজ মোট   612    বার পড়া হয়েছে


শিক্ষা



বিজ্ঞাপন
ওকে নিউজ পরিবার
Shekh MD. Obydul Kabir
Editor
See More » 

প্রকাশক ও সম্পাদক : শেখ মো: ওবাইদুল কবির
ঠিকানা : ১২৪/৭, নিউ কাকরাইল রোড, শান্তিনগর প্লাজা (২য় তলা), শান্তিনগর, ঢাকা-১২১৭।, ফোন : ০১৬১৮১৮৩৬৭৭, ই-মেইল-oknews24bd@gmail.com
Powered by : OK NEWS (PVT) LTD.