03:37am  Friday, 20 Sep 2019 || 
   
শিরোনাম
 »  আজ পবিত্র জুম্মা মোবারক; জুমার দিনে দোয়া কবুল হওয়ার সময়গুলো      »  ২০ সেপ্টেম্বর; আজকের দিনে জন্ম-মৃত্যুসহ যত ঘটনা     »  বাংলাদেশের জন্য বড় ধরনের বোঝা মিয়ানমারের রোহিঙ্গারা      »  গাইবান্ধায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৩ কারেন্ট জাল ব্যবসায়ির দেড় লক্ষ টাকা জরিমানা     »  ফুলছড়িতে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মানববন্ধন কর্মসূচি পালন     »  আমানতের বিপরীতে ঋণ দেওয়ার সুযোগ বাড়ল ব্যাংকের     »  তপন চৌধুরীর নতুন গান প্রকাশ ‘মা থাকে ঐ পারে’     »  টি-টোয়েন্টিতে জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ     »  আ’লীগ সরকার গণমাধ্যমকে অবাধ ও উন্মুক্ত করে দিয়েছে     »  ইমরান খান কাশ্মীর ইস্যুতে সৌদি সফরে    



আসামিকে না পেয়ে স্ত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ পুলিশের বিরুদ্ধে
০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৯ ভাদ্র ১৪২৬, ০৩ মহররম ১৪৪১



যশোরের শার্শা উপজেলার গোড়পাড়া পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) খায়রুল কয়েকজন সোর্সকে সঙ্গে নিয়ে গভীর রাতে আসামির বাড়িতে ঢুকে তার স্ত্রীকে (৩২) গণধর্ষণ করে বলে অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার রাতে এ ঘটনার পর মঙ্গলবার দুপুরে তিনি নিজেই স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতালে যান। এর পরই বিষয়টি জানাজানি হয়। তবে পুলিশের মাধ্যমে না আসায় এ সময় তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়নি।

বিষয়টি জানতে পেরে ওই গৃহবধূকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে শার্শা থানা পুলিশকে তাৎক্ষণিক ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন যশোরের পুলিশ সুপার মঈনুল হক। পরে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ওই নারীর অভিযোগ আমলে নেওয়া হয়েছে। তদন্তের জন্য ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। সত্যতা পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ওই গৃহবধূর অভিযোগ থেকে জানা গেছে, শার্শার গোড়পাড়া ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই খায়রুল ইসলাম গত ২৫ আগস্ট রাতে তার স্বামীকে তুলে নিয়ে গিয়ে পরদিন ৫০ বোতল ফেনসিডিলসহ আদালতে চালান দেয়। এরপর সোমবার রাত আড়াইটার দিকে এসআই খায়রুল, সোর্স চটকাপোতা গ্রামের কামরুল, লক্ষণপুর গ্রামের লতিফ ও কাদেরকে নিয়ে তার বাড়িতে যায়। তারা তাকে ঘুম থেকে ডেকে তুলে স্বামীকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়ার জন্য ৫০ হাজার টাকা দাবি করে। তিনি টাকা দিতে রাজি না হওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে এসআই খায়রুল ও সোর্স কামরুল তাকে ধর্ষণ করে। বাকি দু'জন এ সময় বাইরে দাঁড়িয়ে পাহারা দিচ্ছিল।

মঙ্গলবার সকালে তিনি প্রতিবেশীদের পরামর্শে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতালে যান। যশোর ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আরিফ আহমেদ বলেন, ঘটনার শিকার ওই নারী পুলিশের কাছে না গিয়ে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য নিজেই সরাসরি হাসপাতালে আসেন। কিন্তু ধর্ষণের ঘটনায় পুলিশের রেফারেন্স ছাড়া স্বাস্থ্য পরীক্ষার সুযোগ নেই। বিষয়টি কোতয়ালি থানার ওসিকে জানানো হলে তিনি এসে ওই নারীকে নিয়ে যান। ওসি মনিরুজ্জামান বলেন, তিনি খবর পেয়ে হাসপাতালে যান এবং ভুক্তভোগী নারীকে পুলিশ অফিসে নিয়ে আসেন। বিষয়টি যেহেতু শার্শা থানার, সেখানে কথা বলেন।

শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম মশিউর রহমান সমকালকে বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তবে ওই নারীর স্বামীর বিরুদ্ধে চারটি মাদক মামলা রয়েছে। সর্বশেষ গত ২৫ আগস্ট তাকে ৫০ বোতল ফেনসিডিলসহ গ্রেফতার করা হয়। আর অভিযুক্তদের মধ্যে সোর্স কামরুল ওই নারীর চাচাতো দেবর। স্থানীয় রাজনৈতিক দলাদলির কারণে ওই নারীকে কেউ ইন্ধন দিচ্ছে কি-না, সেটি খতিয়ে দেখা দরকার।


এই নিউজ মোট   540    বার পড়া হয়েছে


নারী ধর্ষণ



বিজ্ঞাপন
ওকে নিউজ পরিবার
Shekh MD. Obydul Kabir
Editor
See More » 

প্রকাশক ও সম্পাদক : শেখ মো: ওবাইদুল কবির
ঠিকানা : ১২৪/৭, নিউ কাকরাইল রোড, শান্তিনগর প্লাজা (২য় তলা), শান্তিনগর, ঢাকা-১২১৭।, ফোন : ০১৬১৮১৮৩৬৭৭, ই-মেইল-oknews24bd@gmail.com
Powered by : OK NEWS (PVT) LTD.