01:08pm  Saturday, 21 Sep 2019 || 
   
শিরোনাম



৭৪ বছরে যমজ সন্তান জন্ম দিয়ে বিশ্বরেকর্ড!
০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২১ ভাদ্র ১৪২৬, ০৫ মহররম ১৪৪১



বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে গুন্টুরের অহল্যা নার্সিং হোমে ৭৪ বছর বয়সে দুই কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়ে রেকর্ড গড়লেন এক ভারতীয় নারী। বিয়ের ৫৭ বছর পর যজম সন্তানের জন্ম দেন অন্ধ্যপ্রদেশের পূর্ব গোদাবরী জেলার দ্রাক্ষারাম ব্লকের নেলাপার্থিপদু গ্রামের বাসিন্দা মঙ্গায়াম্মা।

১৯৬২ সালের ২২ মার্চ ইরামতী রাজা রাও-কে বিয়ে করেন মঙ্গায়াম্মা। কিন্তু সেই থেকে নিঃসন্তান ছিলেন ওই দম্পতি। একাধিক হাসপাতাল ও চিকিৎসক দেখিয়েও আশারূপ ফল পাওয়া যায়নি। সম্প্রতি তাদেরই এক প্রতিবেশী ৫৫ বছর বয়সে ইন ভিট্রো ফার্টিলাইজেশন (আইভিএফ) পদ্ধতির মাধ্যমে গর্ভধারণ করেন। এরপরই মঙ্গায়াম্মা দম্পতি ওই নার্সিং হোমে ছুটে যান, কথা বলেন ডা. সনক্কায়ালা এবং ডা. উমাশঙ্করের সাথে।

চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী রাজা রাওয়ের স্পার্ম সংগ্রহ করে মঙ্গায়াম্মারের গর্ভে প্রতিস্থাপন করা হয়। এরপর গর্ভবতী হওয়া পর্যন্ত ওই চিকিৎসকের নজরদারিতে রাখা হয় মঙ্গায়াম্মাকে।

অবশেষে বৃহস্পতিবার সকালে সিজারিয়ান বিভাগে ডা. উমাশঙ্কর ওই নারীর সফল চিকিৎসা করেন। চিকিৎসক জানান মা ও দুই সন্তান-সকলেই ভাল আছেন।

মঙ্গায়াম্মার জানান, ‘আমরা ভেবেছিলাম সন্তান ছাড়াই আমাদের শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করতে হবে। কিন্তু ৫৫ বছর বয়সেও আমাদের এক প্রতিবেশীকে সন্তানের জন্ম দিতে দেখে আমি আইভিএফ-এর সহায়তা নিই। আমার স্বামীও তাতে সম্মতি জানায়।’

৭৮ বছর বয়সে সন্তানের পিতা হতে পেরে খুশি রাজা রাও। তিনি জানান, ‘আমি নিজেকে খুব সুখী মনে করছি। বিগত নয় মাস ধরে আমরা হাসপাতালে ছিলাম। আজ সন্তানের মুখ দেখে সব কষ্টের কথা ভুলে গেছি। আমরা আমাদের দুই সন্তানকেই সযত্মে রাখবো।’
 
চিকিৎসকদের ধারণা তিনি সন্তান জন্ম দেওয়া সব থেকে বয়স্ক ভারতীয় হতে পারেন। এর আগে এই শিরোপা ছিল রাজস্থানের বাসিন্দা দলজিন্দর কউর-এর, যিনি ২০১৬ সালের ১৯ এপ্রিল ৭০ বছর বয়সে আইভিএফ-এর সহায়তায় একটি পুত্র সন্তানের জন্ম দেন।
এই নিউজ মোট   528    বার পড়া হয়েছে


নারী



বিজ্ঞাপন
ওকে নিউজ পরিবার
Shekh MD. Obydul Kabir
Editor
See More » 

প্রকাশক ও সম্পাদক : শেখ মো: ওবাইদুল কবির
ঠিকানা : ১২৪/৭, নিউ কাকরাইল রোড, শান্তিনগর প্লাজা (২য় তলা), শান্তিনগর, ঢাকা-১২১৭।, ফোন : ০১৬১৮১৮৩৬৭৭, ই-মেইল-oknews24bd@gmail.com
Powered by : OK NEWS (PVT) LTD.