03:04am  Sunday, 07 Jun 2020 || 
   
শিরোনাম
 »  করোনা সন্দেহে ফেলে যাওয়া ৫৫ বছর বয়সী মাকে হাসপাতালে নিল পুলিশ      »  করোনার কারনে মা দক্ষিণ সুদানে, বাবা দক্ষিণ কোরিয়ায়, আর সন্তানেরা উগান্ডায়     »  সংকটাপন্ন হওয়ায় আ.লীগ নেতা নাসিমকে ৭২ ঘণ্টা নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখার সিদ্ধান্ত      »  দ্বিতীয় স্ত্রী দাবি করে এমপি এনামুলের সম্মানহানির অভিযোগে আয়েশার নামে মামলা     »  স্থিতিশীল রয়েছে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর শারীরিক অবস্থা      »  দেশে ৩৫ জনসহ করোনায় মৃত্যু ৮৪৬, ২,৬৩৫ জনসহ আক্রান্ত ৬৩,০২৬ জন      »  শিবগঞ্জ পৌর মেয়রের সংবাদ সম্মেলনের বিরুদ্ধে প্রতিপক্ষের পাল্টা সম্মেলন     »  বাগেরহাটে ৫ লাখ টাকার নিষিদ্ধ জাল পুড়িয়ে ধ্বংস     »  এমপি শেখ হেলাল উদ্দীনের নির্দেশনায় বেদে সম্প্রদায়কে মানবিক সহায়তা প্রদান     »  আম্পানে বিধ্বস্ত শরণখোলায় বগী গ্রাম আবারও জোয়ারের পানিতে প্লাবিত   



৯শ টাকা না দেওয়ায় স্ত্রীর গায়ে আগুন দিল স্বামী
০২ অক্টোবর ২০১৯, ১৭ আশ্বিন ১৪২৬, ২ সফর ১৪৪১



কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার মেকুরটারি গ্রামে সেলাই কাজের পারিশ্রমিক হিসেবে পাওয়া ৯শ টাকা না দেওয়ায় স্ত্রীর গায়ে আগুন দিয়েছে এক স্বামী। অগ্নিদগ্ধ গৃহবধূ ইসমত আরাকে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে টাকা নিয়ে ঝগড়ার এক পর্যায়ে স্ত্রীর গায়ে কোরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় স্বামী শহিদুল। এতে ইসমত আরার বুক থেকে নাভি পর্যন্ত অংশ ঝলসে যায়। পরে ইসমত আরা স্বজনরা তাকে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে ভর্তি করে দেয়।

জানা গেছে, ৫ বছর আগে রংপুরের শ্যামপুর এলাকার ইসমত আরার সাথে কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার মেকুরটারি গ্রামের নির্মাণ শ্রমিক শহিদুলের বিয়ে হয়। তাদের চার বছরের একটি ছেলেও রয়েছে।

ইসমত আরা জানান, কিছুদিন ধরে শহিদুল তাকে প্রায়ই টাকার জন্য চাপ দিতো। কয়েকদিন আগে সেলাই করে ৯শ টাকা পেয়েছিলেন। এই টাকার মধ্যে ৮০০ টাকা তিনি পাওয়নাদারকে দিয়েছেন। কিন্তু শহিদুলকে এই টাকা না দেওয়ায় তাদের মধ্যে মনোমালিন্য চলছিলো। মঙ্গলবার রাতে এ নিয়ে ঝগড়ার এক পর্যায়ে ইসমত আরার গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন স্বামী শহিদুল। ইসমত আরা জীবন বাঁচাতে নিজের শরীরে পানি ঢেলে দেন। পরে তার ভাসুর এসে তাকে গুরুতর অবস্থায় সদর হাসপাতালে ভর্তি করান।

বুধবার দুপুরে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালের গাইনি সার্জারি ওয়ার্ডে গিয়ে দেখা যায়, অসহ্য যন্ত্রণায় ইসমত আরা কাতরালেও পাশে তার কোনো স্বজন নেই। বুকের নিচে থেকে নাভির উপর পর্যন্ত পুরোটাই বড় বড় ফোসকা পড়েছে। তার স্বামী ঘটনার পর থেকে উধাও হয়ে গেছেন। গভীর রাতে তার ভাসুর আশরাফুল তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে দেন। সকালে শাশুড়ি এসেছিলেন। কিন্তু পরে তারাও সটকে পড়েছেন। খবর দেওয়া হলেও এখনও ইসমত আরা বাবা মা আসেনি। তাকে দেখাশোনা করছেন পাশের বেডের এক রোগীর স্বজন।

কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতাল তত্ত্বাবধায়ক ডা. আবু মো. জাকিরুল ইসলাম জানান, ইসমত আরার শরীরে ১০ ভাগ পুড়ে গেছে। আশা করা যায় তিনি চিকিৎসায় সুস্থ হয়ে উঠবেন। তার প্রয়োজনীয় চিকিৎসা ও ওষুধ দেওয়া হচ্ছে। সরবারহ নেই এমন ওষুধ কেনার জন্য সমাজসেবা অধিদপ্তরের সহায়তা নেওয়া হচ্ছে।

এ বিষয়ে রাজারহাট থানার ওসি কৃষ্ণ কুমার সরকার বলেন, বিষয়টি জানতে পেরে একজন অফিসারকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


এই নিউজ মোট   962    বার পড়া হয়েছে


নারী নির্যাতন



বিজ্ঞাপন
ওকে নিউজ পরিবার
Shekh MD. Obydul Kabir
Editor
See More » 

প্রকাশক ও সম্পাদক : শেখ মো: ওবাইদুল কবির
ঠিকানা : ১২৪/৭, নিউ কাকরাইল রোড, শান্তিনগর প্লাজা (২য় তলা), শান্তিনগর, ঢাকা-১২১৭।, ফোন : ০১৬১৮১৮৩৬৭৭, ই-মেইল-oknews24bd@gmail.com
Powered by : OK NEWS (PVT) LTD.