04:10am  Thursday, 04 Jun 2020 || 
   
শিরোনাম
 »  ঘূর্ণিঝড় ও করোনার মহামারীতেও কিভাবে আমরা লক্ষ মানুষকে নিরাপদ রেখেছি     »  করোনার মধ্যেও দেশের ইতিহাসে বৈদেশিক মুদ্রা সর্বোচ্চ রিজার্ভ     »  জেনে নিন বিশ্বের কোন কোন শীর্ষ নেতা করোনায় আক্রান্ত!      »  ‘সবাইকে সচেতনতার প্রাচীর গড়ে তুলতে হবে, নতুবা সরকার কঠোর হতে বাধ্য     »  এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত ৫,৫০৭ জন পুলিশ সদস্য; সুস্থ হয়েছেন ২ ১০৬ জন,     »  সুস্থ আছেন সিএমএইচে ভর্তি প্রধান বিচারপতি      »  আয়ারল্যান্ডের ভিসা প্রক্রিয়া সহজ করার অনুরোধ জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী     »  ভোলাহাটে করোনা উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু     »  শিবগঞ্জে অসহায় ও দু:স্থদের পাশে মানুষ মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন      »  করোনা পুঁজি করে শাসকগোষ্ঠী নিজেদের পকেট ভারী করছে: রিজভী    



কাঠমিস্ত্রী থেকে ফেসবুকে জনপ্রিয় নেত্রকোনার রিপন
০৪ অক্টোবর ২০১৯, ১৯ আশ্বিন ১৪২৬, ০৪ সফর ১৪৪১



রিপন পেশায় কাঠমিস্ত্রী। আসবাবপত্র তৈরির দোকানে কাজ করেন। এর ফাঁকে মোবাইলে ফেসবুক দেখতেন। বুঝে উঠতে পারতেন যে আসলে ফেসবুকে কী লেখা রয়েছে। পড়েছেন তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত। স্বাভাবিকভাবেই সবকিছু পড়তে পারেন না।

'আমি তো মোবাইল বন্ধ রাখি। সারাদিন মোবাইলে ফোন আসে। সবাই শুধু কথা বলতে চায়। জানতে চায় আমি কী করি, কোথায় থাকি এসব। আমার সাথে গল্প করতে চায়। এজন মোবাইল বন্ধ রাখি। না হলে কাজ করতে পারি না।'


কথাগুলো নেত্রকোনার রিপন নামের এক যুবকের। ফেসবুকে হুট করে জনপ্রিয় হয়ে গেছেন এই রিপন। এখন আর সেই ধকল সামলাতে পারছেন না। নামের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে ভিডিও। অর্থাৎ রিপন সোশ্যাল মিডিয়ায় 'রিপন ভিডিও' নামে পরিচিত  হয়েছে গেছেন। মাত্র ক'দিনে ফেসবুক অনুসরণকারীর সংখ্যা পৌনে ৩ লাখ।

আকস্মিক এই জনপ্রিয়তার উৎস কী? তাকে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলে দিয়েছিলেন এক বন্ধু। সেখানে ভুল উচ্চারণে নিজে ছন্দ মিলিয়ে মিলিয়ে ভিডিও বানিয়ে পোস্ট করতেন। এই ভিডিও ক্রমাগত ছড়াতে থাকে।  রিপনের ভিডিওগুলো মজা করে দেখে নেটিজেনরা শেয়ার দিচ্ছেন যার কারণে এগুলো ক্রমাগত ছড়াচ্ছে। এই হাসি ঠাট্টার কারণেই রিপন এখন নেত্রকোনা সদরে আলোচিত।


অকপটে সবকিছু স্বীকার নিয়ে রিপন বলেন, 'আমি ফেসবুকে কিছু পড়তে পারি না। আমার বন্ধুরা ফেসবুক খুলে দিয়েছে। যখন কাজ থাকে না, তখন আমি ছন্দ বানাই। মাস দুইয়েক আগের ঘটনা, একদিন মনে হলো ছন্দগুলো ভিডিও করি। ভিডিও করেছিলাম। পরে মনে হলো ফেসবুকে দেই। ফেসবুকে দেওয়ার পরে মানুষ সেগুলো নিয়ে কথা বলতে শুরু করে।'

গত ঈদে একটি ভিডিও ছেড়েছিলেন। সেই ভিডিওতে নিজের বাসায় ঈদের দাওয়াত দিয়েছিলেন বন্ধুদের। ভিডিওটি হাসি ঠাট্টায় সোশ্যাল মিডিও ছড়িয়ে পড়ে। এরপরই তাকে গ্রামের কয়েকজন পেইজ খুলে দেন। পেইজটাও নাকি তারাই চালান। আর রিপন মাঝেমধ্যে নিজের ভিডিও আপলোড করেন।

জনপ্রিয়তার যে ধকল রয়েছে সেটা হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছেন। বললেন, 'দিন নাই রাত নাই সবসময় আমার মোবাইলে ফোন আসে, কোনো কাজ করতে পারি না। তাই এখন মোবাইল বন্ধ করে রাখি। কিন্তু রেহাই নেই। মানুষজন দেখা করতে চলে আসে। ঢাকা থেকে অনেকজন  ইন্টারভিউ করে নিয়ে গেছেন। ইউটিউবে সেসব প্রকাশ হয়েছে। এখনও আসছে।'


এই নিউজ মোট   7188    বার পড়া হয়েছে


তথ্য-প্রযুক্তি



বিজ্ঞাপন
ওকে নিউজ পরিবার
Shekh MD. Obydul Kabir
Editor
See More » 

প্রকাশক ও সম্পাদক : শেখ মো: ওবাইদুল কবির
ঠিকানা : ১২৪/৭, নিউ কাকরাইল রোড, শান্তিনগর প্লাজা (২য় তলা), শান্তিনগর, ঢাকা-১২১৭।, ফোন : ০১৬১৮১৮৩৬৭৭, ই-মেইল-oknews24bd@gmail.com
Powered by : OK NEWS (PVT) LTD.