03:36am  Wednesday, 22 Jan 2020 || 
   
শিরোনাম
 »  দ্বিতীয় স্ত্রীকে তালাক দেওয়ায় স্বামীকে দুধ দিয়ে গোসল করিয়ে বরণ প্রথম স্ত্রীর      »  পূর্ণ মেয়াদে অধিনায়কত্ব পাবেন মাহমুদউল্লাহ?     »  ইফতেখার চৌধুরীর ছবিতে ববি-বাপ্পী     »  রিয়া চক্রবর্তী সুশান্তের সঙ্গে সম্পর্কের কথা স্বীকার করলেন     »  নিউইয়র্কে বঙ্গবন্ধুর ভাষণের দিন ‘বাংলাদেশি ইমিগ্র্যান্ট ডে’      »  নির্বাচনী এলাকায় ভোটের দিন শিল্পকারখানা বন্ধ রাখার নির্দেশ     »  সতিনের ছেলের স্ত্রীকে ফাঁসাতে নবজাতককে হত্যা করে পাষণ্ড মা     »  শিক্ষার্থীদের অতিরিক্ত বই ও বাড়তি ফি আদায় বন্ধের নির্দেশ     »  শাবানা আজমির শারীরিক অবস্থা অনেকটাই স্থিতিশীল     »  পশ্চিম রেলে কাজ ছোট, কিন্তু অবিশ্বাস্য লুটপাট   



সন্তান হারানো এক মায়ের করুন আর্তনাদ- ‘তোরা এত্ত খারাপ’ তোদের মনে মায়া দয়া নেই
৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ৮ রবিউস সানি ১৪৪১



রাজধানীর সিদ্ধেশ্বরীতে ‘ধর্ষণের’ পর হত্যার শিকার স্ট্যামফোর্ড ছাত্রী রুবাইয়াত শারমিন রুম্পার (২১) দাফন সম্পন্ন হয়েছে। এদিকে একমাত্র মেয়েকে হারিয়ে রুম্পার বাবা-মা দুজনই এখন শোকে বিহ্বল। বাবা রুকন উদ্দিন নিজেকে সামলে নিতে পারছেন না কোনো ভাবেই। বার বার ছুটে যাচ্ছেন মেয়ের কবরের পাশে। অসহায় পিতার ঝরে পড়া অশ্রুতে কবরের মাটিও ভিজে উঠছে।

অপরদিকে বারবার মূর্ছা যাচ্ছেন রুম্পার মা নাহিদা আক্তার। আর্তনাদ করছেন আর সন্তান হারানোর বেদনায় মুষড়ে পড়েছেন। কান্না যেন থামছেই না। কান্নার শব্দের সাথে সাথে ভেসে আসছে মেধাবী সন্তানের নানা কথা। কখনো চিৎকার করে কাঁদছেন, কখনো কাঁদতে কাঁদতে ক্লান্ত হয়ে পড়ছেন।

কিছু বলতে চেয়েও যেন পারছেন না। হঠাৎ চিৎকার দিয়ে বলে উঠলেন, ‘তোরা এত্ত খারাপ’ তোদের মনে মায়া দয়া নেই। তোরা কোনো মায়ের পেট থেকে পড়িসনি, তোদের বিচার যেন দেইখ্যা যাইতে পারি।’

রুম্পার মায়ের বুকফাটা এমন হাহাকার গ্রামবাসীর বুকেও যেন হাতুড়ি মারছে। এলাকাবাসী বলছেন, মৃত্যুর পরিণতির প্রতিশব্দ এমনভাবে নাড়া দিয়ে যায়নি। এ শুধু মৃত্যুই নয়, বাবা-মায়ের আমৃত্যু বুকফাটা যন্ত্রণা।

এদিকে ফেনীর নুসরাত হত্যা মামলার মতোই রুম্পার হত্যাকারীদের দ্রুত বিচার দাবি করেছেন স্বজন ও এলাকাবাসী। তারা বলছেন, অপরাধীদের দ্রুত সনাক্ত করে বিচারের আওতায় আনতে হবে।

উল্লেখ্য, গত বুধবার রাতে রাজধানীর সিদ্ধেশ্বরী সার্কুলার রোডের আয়েশা শপিং কমপ্লেক্সের পেছনে দুই বাড়ির মাঝ থেকে উদ্ধার করা হয় রুবাইয়াত শারমিন রুম্পা (২১)-এর মরদেহ। তার মৃত্যু নিয়ে এখনও ধোঁয়াশা কাটেনি।

জানা গেছে, রুবাইয়াত শারমিন রুম্পা স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটির ছাত্রী ছিলেন। তার বাবা পুলিশ পরিদর্শক রোকন উদ্দিন। তাদের বাড়ী ময়মনসিংহ হলেও থাকতেন মালিবাগের শান্তিবাগে।

আজ শুক্রবার রমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম গণমাধ্যমকে বলেন, ঘটনাস্থলের পাশে তিনটি ভবন আছে। এগুলোর যেকোনও একটা থেকে পড়ে রুম্পা মারা গেছেন। আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে, মামলা তদন্তাধীন।

ঢামেকের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ বলেন, উপর থেকে পড়েই তরুণীর মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হওয়া গেছে। তবে ধর্ষণের বিষয়টি নিশ্চিত হতে তার মৃতদেহ থেকে হাইভেজেনাল সপসহ ভিসেরা সংগ্রহ করা হয়েছে। তা পরীক্ষাগারে পাঠানো হবে। সেই রিপোর্ট এলে এ বিষয়ে বিস্তারিত প্রতিবেদন দেওয়া হবে। তবে ধর্ষণের পর রুম্পাকে হত্যা করা হয়েছে বলেই প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

মাত্র পাঁচ লাখ টাকার জন্য দিনমজুর বাবার স্বপ্ন কি হারিয়ে যাবে?


এই নিউজ মোট   120    বার পড়া হয়েছে


ওকে নিউজ স্পেশাল



বিজ্ঞাপন
ওকে নিউজ পরিবার
Shekh MD. Obydul Kabir
Editor
See More » 

প্রকাশক ও সম্পাদক : শেখ মো: ওবাইদুল কবির
ঠিকানা : ১২৪/৭, নিউ কাকরাইল রোড, শান্তিনগর প্লাজা (২য় তলা), শান্তিনগর, ঢাকা-১২১৭।, ফোন : ০১৬১৮১৮৩৬৭৭, ই-মেইল-oknews24bd@gmail.com
Powered by : OK NEWS (PVT) LTD.