09:47pm  Saturday, 15 Aug 2020 || 
   
শিরোনাম
 »  ভারতের স্বাধীনতা দিবসে হিলি সীমান্তে মিষ্টি বিতরণ      »  গোবিন্দগঞ্জে বঙ্গবন্ধুর ৪৫তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন      »  দিনাজপুরে করোনায় আরও দূ'জনের মৃত্যুঃ নতুন ৫১জন করোনায় আক্রান্ত     »  প্রধানমন্ত্রীর ভাবর্মূতি ক্ষুন্ন করতে সিন্ডিকেট চক্র হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতিবন্ধির টাকা     »  শিবগঞ্জে যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতীয় শোক দিবস পালিত     »  ভোলাহাটে জাতীয় শোক দিবসের যত অনুষ্টান     »  বঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে আনতে প্রচেষ্টা জোরদার করা হয়েছে     »  সিআইএ এবং বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড      »  ‘কর্নেল মাহফুজুর রহমানের মাধ্যমে জিয়া আমাকে মন্ত্রী হওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিল     »  সিনহা হত্যা মামলায় তিনটি প্রশ্নের জবাব খুঁজছেন তদন্তকারীরা   



তরুণকে তুলে নিয়ে বিয়ে করলেন স্বামী পরিত্যক্তা নারী!
০৮ জানুয়ারি ২০২০, ২৪ পৌষ ১৪২৬, ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১



গতকাল মঙ্গলবার আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে রাজশাহীর সুরুজ বাসফর (২৬) নামের এক তরুণকে তুলে নিয়ে বিয়ে করার অভিযোগ করেন এক নারীর বিরুদ্ধে। ওই নারীর আগেও বিয়ে হয়েছিল। তবে স্বামী তাকে ছেড়ে চলে গেছে।  

সুরুজ বাসফরের বাড়ি রংপুরে। রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের পরিচ্ছন্নতাকর্মী সুরুজ থাকেন স্টাফ কোয়ার্টারে। বাবু হেলা নামে রামেক হাসপাতালেরই রান্নাঘরে দায়িত্বরত চতুর্থ শ্রেণির এক কর্মচারীর মেয়ের সঙ্গে গত শনিবার তার বিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

সুরুজ বাসফর অভিযোগ করেন, ‘হাসপাতালের কোয়ার্টারে থাকি আমি। পাশেই কোয়ার্টারে পরিবার নিয়ে থাকেন বাবু হেলা। তার স্বামী পরিত্যক্তা মেয়েকে বিয়ের জন্য আমাকে প্রস্তাব দেওয়া হয়। ওই প্রস্তাব নাকচ করে কোয়ার্টার ছেড়ে দিতে নতুন বাসা খুঁজতে শুরু করি। শনিবার বাবু হেলার স্ত্রী এবং মেয়ে আমাকে বাসা দেখানোর নাম করে হাসপাতাল থেকে ডেকে নিয়ে যান। অটোরিকশায় ওঠার পর হঠাৎ অপরিচিত দুই যুবকও অটোরিকশায় ওঠেন। তারা জোর করে আমাকে হড়গ্রাম শিবমন্দিরে নিয়ে যান। সেখানে আগে থেকে ৭-৮ জন যুবক অপেক্ষা করছিলেন। কিন্তু মন্দিরে ছিলেন না কোনো ঠাকুর। মন্দিরের সামনে আমাকে অস্ত্রের মুখে বাবু হেলার মেয়ের মাথায় সিঁদুর দিতে বাধ্য করা হয়। তখন সেই ছবি তোলা হয়। এরপর থেকে প্রচার চালানো হয় আমার বিয়ে হয়ে গেছে।’

সংবাদ সম্মেলনে ওই তরুণ বলেন, ‘এই ঘটনার পর থেকে আমি পালিয়ে বেড়াচ্ছি। কখনো বাবু হেলার বাসায় যাইনি। তার মেয়েকেও বাসায় নিয়ে যাইনি। এ বিয়ে মানি না আমি। এ ব্যাপারে প্রথমে রামেক হাসপাতাল কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদকের কাছে অভিযোগ দেই। তারপর থেকে বাবু হেলার পরিবার ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। আমার মামা এবং বোন এ ঘটনার প্রতিবাদ জানাতে গেলে তাদের অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করা হয়। এ সময় তাদের মারধর করা হয়।’

সুরুজ বলেন, ‘ঘটনার পরদিনই রাজপাড়া থানায় গিয়ে পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করে অভিযোগ করতে চাই। কিন্তু কোনো ছেলেকে তুলে নিয়ে বিয়ে করা সম্ভব নয় মন্তব্য করে পুলিশ অভিযোগ নেয়নি। কয়েক দফা থানায় ঘুরেও পরে অভিযোগ দিয়েছি।’

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন সুরুজ বাসফরের মামা শ্রী তাজ এবং সহকর্মী জনি প্রামাণিক।

এ বিষয়ে জানতে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি বাবু হেলাকে।

নগরীর রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহাদাত হোসেন খান বলেন, ‘নিবন্ধন না হলে তো আইনগতভাবে বিয়ের কোনো ভিত্তি নেই। এটা প্রথা অনুযায়ী হতে পারে। আমরা একটা অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখব।’
এই নিউজ মোট   230    বার পড়া হয়েছে


নারী



বিজ্ঞাপন
ওকে নিউজ পরিবার
Shekh MD. Obydul Kabir
Editor
See More » 

প্রকাশক ও সম্পাদক : শেখ মো: ওবাইদুল কবির
ঠিকানা : ১২৪/৭, নিউ কাকরাইল রোড, শান্তিনগর প্লাজা (২য় তলা), শান্তিনগর, ঢাকা-১২১৭।, ফোন : ০১৬১৮১৮৩৬৭৭, ই-মেইল-oknews24bd@gmail.com
Powered by : OK NEWS (PVT) LTD.