03:50pm  Friday, 10 Apr 2020 || 
   
শিরোনাম
 »  আরও ১১ দিন বাড়িয়ে সরকারি ছুটি ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত     »  দেশে ৬ জনসহ করোনায় মারা গেলেন ২৭জন, রোগী শনাক্ত ৯৪; মোট আক্রান্ত ৪২৪      »  অনেক জায়গার রুগীই নারায়নগঞ্জ থেকে গিয়েছেন     »  পরীক্ষায় প্রমাণ হলো করোনা চিকিৎসায় কাজ করছে এইডসের ওষুধ 'ক্যালেট্রা'     »  হে আল্লাহ ‘করোনা’ থেকে আপনার করুণা চাই     »  প্রধানমন্ত্রী ধন্যবাদ জানালেন চীনা প্রেসিডেন্টকে      »  অবশেষে প্রতিমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে দিনাজপুর রুপালী বাংলা জুট মিলের কার্যক্রম বন্ধ     »  করোনাভাইরাস পরীক্ষার পিসিআর মেশিন স্থাপন হলো দিনাজপুরে      »  দিনাজপুরে বিভিন্ন পাড়া-মহল্লায় লকডাউনের নামে চলছে তামাশা !     »  দিনাজপুরে অসুস্থ্য জামাইকে দেখে বাড়ি থেকে পালালো শাশুড়ি !   



মুক্তিযোদ্ধা আফছার আলী স্বাধীনতার ৪৮ বছরেও রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি পেলনা
১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, রোববার, ৩ফাল্গুন ১৪২৬, ২১ জমাদিউস সানি ১৪৪১



গাইবান্ধা প্রতিনিধি: ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে জীবন বাজি রেখে সক্রিয়ভাবে অংশ নিয়েও আজ পর্যন্ত রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি পাননি বীর মুক্তিযোদ্ধা আফছার আলী। স্বাধীনতার ৪৮ বছরেও তিনি মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে তালিকাভূক্ত হতে পারেননি। ফলে তার ভাগ্যে জোটেনি কোন ভাতা বা সুযোগ-সুবিধা। গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলার কঞ্চিপাড়া ইউনিয়নের ভাষারপাড়া গ্রামের পিতা: মৃত-আফিল উদ্দিন ও মাতা: মৃত- নবিরননেছার আট ছেলে-মেয়ের মধ্যে আফছার আলী তৃতীয়। এ নিয়ে দৈনিক যুগের আলো, সাপ্তাহিক নুরজাহান, ম্যাগাজিন এই সময় পত্রিকাসহ একাধিক জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকায় খবর প্রকাশ হলেও আজও কোন প্রতিকার পাওয়া যায়নি।
দেশকে স্বাধীন করতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহŸানে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিতে বাড়ি থেকে বেরিয়ে পড়েন তরতাজা যুবক আফছার আলী। ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ কবির চৌধুরী(সাবেক পুলিশ অফিসার) এবং আরও ২৮জনসহ আফছার আলী ভারতে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বালাসীঘাট দিয়ে নৌকা যোগে জিগাবাড়ির চরে পৌঁছান। সেখান থেকে পাথরের চর, তারপর ২৮ মার্চ ভারতের মেঘালয়ের আমপাতি শহরে সঙ্গীদেরসহ পা রাখেন আফছার। ভারতের কাকরীপাড়া ক্যাম্পে প্রশিক্ষক সুবেদার আজিম উদ্দিনের অধীনে সশস্ত্র প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। এরপর তিনি কোম্পানী কমান্ডার এম.এন নবী লালুর অধীনে হানাদার পাকিস্তানী বাহিনী ও তাদের এ দেশীয় দোসরদের বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধে সক্রিয়ভাবে অংশ নেন। বীর মুক্তিযোদ্ধা আফছার আলী রসুলপুরের ¯¬ুইস গেট, দারিয়াপুরের ব্রীজ, গাইবান্ধার ওয়ারলেস ধ্বংস করাসহ বিভিন্ন অপারেশনে সহযোদ্ধাদের সাথে সক্রিয়ভাবে অংশ নেন।
শুধু অক্ষরজ্ঞান সম্পন্ন স্বল্প শিক্ষিত এই মুক্তিযোদ্ধা দেশ মাতৃকার প্রয়োজনে পাকিস্তানীদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করেছেন জীবন বাজি রেখে। কিন্তু স্বাধীনতার ৪৮ বছরেও তার ভাগ্যে জোটেনি কোন স্বীকৃতি। মুক্তিযোদ্ধার ভাতা পাওয়া তো দূরের কথা, বিজয় দিবস ও স্বাধীনতা দিবসের কোন অনুষ্ঠানেও আমন্ত্রণ পাননি এই অকুতোভয় মুক্তিযোদ্ধা আফছার আলী। বঞ্চিত এই মুক্তিযোদ্ধা বর্তমানে নানাবিধ অভাব-অনটনে জর্জরিত। তার এক ছেলে বর্তমানে মানসিক রোগে আক্রান্ত। কিন্তু অর্থাভাবে ছেলের চিকিৎসাও করাতে পারছেন না তিনি। শেষ জীবনেও কি তার ভাগ্যে জুটবে না কোন স্বীকৃতি? তিনি কি বঞ্চিতই থেকে যাবেন? দেশের হৃদয়বান ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকেও তিনি কি কোন সাহায্য-সহযোগিতা পেতে পারেন না?  

ফারুক হোসেন, গাইবান্ধা।

এই নিউজ মোট   101    বার পড়া হয়েছে


মুক্তিযুদ্ধ



বিজ্ঞাপন
ওকে নিউজ পরিবার
Shekh MD. Obydul Kabir
Editor
See More » 

প্রকাশক ও সম্পাদক : শেখ মো: ওবাইদুল কবির
ঠিকানা : ১২৪/৭, নিউ কাকরাইল রোড, শান্তিনগর প্লাজা (২য় তলা), শান্তিনগর, ঢাকা-১২১৭।, ফোন : ০১৬১৮১৮৩৬৭৭, ই-মেইল-oknews24bd@gmail.com
Powered by : OK NEWS (PVT) LTD.