03:13am  Thursday, 22 Oct 2020 || 
   
শিরোনাম
 »  ২২ অক্টোবর; আজকের দিনে জন্ম-মৃত্যুসহ যত ঘটনা     »  দিনাজপুরে আগাম শীতকালীন সব্জি     »  দিনাজপুরে পৌর নির্বাচনে সম্ভাব্যপ্রার্থীদের দৌঁড়-ঝাপ !     »  শারদীয় দূর্গোৎসব উৎযাপন উপলক্ষে ৬ দিন বন্ধ থাকবে হিলি স্থলবন্দর     »  ২২ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার চ্যানেল আইতে দেখবেন     »  ক্যাশ আউট খরচ নিয়ে বিভ্রান্তিকর প্রচারণা অব্যাহত রেখেছে নগদ     »  বৃহস্পতিবার রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের দাতা সম্মেলন      »  সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল ও ব্যারিস্টার রফিক-উল হক লাইফ সাপোর্টে      »  দেশে আসলেই পিকে হালদারকে গ্রেপ্তারের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট     »  দুঃখ সইতে না পেরে ক্রাচে ভর দিয়ে এসে ট্রেনের নিচে পেতে দিলেন মাথা   



উপ-নির্বাচন; ঢাকা-৫ এর মানুষের জন্য মরতে চান মাসুদ
১৭ আগস্ট ২০২০, সোমবার, ২ ভাদ্র ১৪২৭, ২৫ জিলহজ ১৪৪১



বিশেষ প্রতিবেদক : ওকে নিউজ টুয়েন্টিফোর বিডি.কম এর নির্বাচন পাতার নিয়মিত আয়োজন সংসদীয় “উপ-নির্বাচন”। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়লাভ করার পরেও বিভিন্ন কারনে অনেকেই দুনিয়া থেকে বিদায় নিয়েছেন। যে সকল আসনে বিভিন্ন কারনে উপ-নির্বাচন হবে সেই সকল আসন নিয়ে আমাদের এই আযোজন। মূলত আপনি কোন যোগ্যতায় আপনি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে চান, কেন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে চান, নির্বাচনে জয়লাভ করলে আপনি আপনার জনগণের জন্য কি করতে চান সেই সকল বিষয় নিয়েই মূলত আলোচনা হয়।

গত কিছুদিন হলো ঢাকা-৫ আসনের সন্মানিত সংসদ সদস্য আলহাজ হাবিবুর রহমান মৃত্যূবরণ করেন। সেই হিসেবে উপ-নির্বাচনের জন্য ঢাকা-৫ আসন এলাকায় প্রচার প্রচারনা চালাচ্ছে বিভিন্ন সম্ভাব্য অংশগ্রহণ প্রত্যাশিরা। আজ আমরা কথা বলব ডেমরা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি, যিনি তার দলীয় এবং ব্যাক্তিগত কর্মগুনে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশি এ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম মাসুদের সাথে।

ওকে নিউজ oknews24bd.com: আমরা জানতাম আপনি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে চেয়েছিলেন বারবার কিন্তু নমিনেশন পাননি কেন?
রফিকুল ইসলাম মাসুদ: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন এর তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বীতার মুখে ছিলাম কিন্তু আমাদের এইখানে মরহুম সাবেক সংসদ আলহাজ্ব হাবিবুর রহমান মোল্লা এই অঞ্চলের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন। তিনি আমাদের সেই সময় চলমান এমপি ছিলেন তাকেই জননেত্রী শেখ হাসিনা পুনরায় মনোনয়ন দেয়ার কারণে আমরা জাতীয় একাদশ সংসদ নির্বাচনে সামনে আসতে পারি নি এটাই ছিল তার মূল কারণ। নির্বাচনের প্রায় ১ বছর ৫ মাস পরে গত ৫ ই মে ইন্তেকাল করেন এবং তিনি ইন্তেকাল করার পরে আসনটি শূন্য হয়েছে, এখানে সাংগঠনিক বাধ্য বাধকতা রয়েছে নির্বাচন করার/ আমাদের তিন মাসের মধ্যে এখানে উপ নির্বাচন হওয়ার কথা, জানিনা এখানে জননেত্রী শেখ হাসিনা তিন মাসের মধ্যে কোন নির্বাচন দিবে কিনা! তিন মাসে নির্বাচন না দিলেও আমাদের এই মহামারী এবং প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারনে আমাদের আরও তিন মাসের সময় নেওয়ার ক্ষমতা আছে/ সেক্ষেত্রে আমরা আশাবাদী কিছুদিনের মধ্যে হয়তো ঢাকা -৫ সহ অন্যান্য সংসদীয় আসন গুলো তে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করবে । জননেত্রী শেখ হাসিনা যে সিদ্ধান্ত নিবে সেটা অবশ্যই সংবিধানকে সম্মত রাখার জন্য জনগণের মঙ্গলের জন্য ও দেশের মঙ্গলের জন্য সিদ্ধান্ত নিবে এবং সেই সিদ্ধান্ত আমরা স্বাগতম জানাবো।

ওকে নিউজ oknews24bd.com: এই যে সংবিধানের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ৩ মাস বা ছয় মাস পরে যদি হয় আপনি কি এ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবেন?

রফিকুল ইসলাম মাসুদ: ডেফিনেটলি আমি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দাঁড়ানোর জন্য ঢাকা-৫ সর্বস্তরের জনগনকে সাথে নিয়ে কাজ করে গিয়েছি এখনও আমি সেই জনগণকে সাথে নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছি। যেমন ধরেন এই করোনা মহামারীতে আমরা রাজনৈতিক সংগঠন থানা সভাপতি রাজনৈতিকভাবে এই এলাকার জনগণকে করোনা মহামারী তে লকডাউন চলাকালীন সময়ে ১৯০০ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দিয়েছে এবং পাশাপাশি অনেককে নগদ অর্থ দিয়ে সাহায্য করেছি, ঈদের সময় অনেক পরিবারকে পোলাওর চাল সেমাই-চিনি ঘী দিয়েছি, যারা লজ্জায় এই সকল সামগ্রী নিতে আসতে লজ্জা পাচ্ছে তাদের অনেককে গোপনে বাড়িতে পৌঁছে দিয়েছি। তো জনগনের সাথেই আছি, জনগণকে সাথে নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছি, জনগণকে আগামী দিনে সাথে নিয়ে এগিয়ে যেতে চাই জনগণের মঙ্গলের জন্য জনগণের সুখ শান্তির জন্য ঢাক ঢাকা-৫ নির্বাচনী এলাকায় যে উপনির্বাচন সেখানকার আমি একজন প্রার্থী হিসেবে মনে করি এবং এর জন্য কাজ করে যাচ্ছি।

ওকে নিউজ oknews24bd.com: আপনিতো কোন দল থেকে মনোননয় চাইবেন?
রফিকুল ইসলাম মাসুদ: অবশ্যই আওয়ামী লীগ থেকে, আওয়ামী লীগ ছাড়া আমার মূল্য কি? জননেত্রী শেখ হাসিনার নৌকা ছাড়া আমার মূল্য কি? আমি ডেমরা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি, আমি যাব কোথায়? আমি যাব জননেত্রী শেখ হাসিনা কাছে, চাইব আওয়ামী লীগের কাছে। দিলেই আমি নির্বাচন করব, না দিলে আমি করবো না। আমি ৩২ বছর যাবত দল করে অঅসছি।

ওকে নিউজ oknews24bd.com: কোন যোগ্যতা আপনি দলের জন্য কি করছেন জানতে চাইলে মাসুদ বলেন-

রফিকুল ইসলাম মাসুদ: অষ্টআশি সালে সুলতান সুলতান মোহাম্মদ মনসুর সুলতান মোহাম্মদ মনসুর এবং ডক্টর মোস্তাক যে ডাকসু নির্বাচন করে সে ডাকসু নির্বাচনে আমি একজন ক্ষুদ্র কর্মী হিসেবে আমি সেখানে কাজ করি। এরশাদ বিরোধী গণ আন্দোলনে গণঅভ্যুত্থানে পালন সক্রিয় ভূমিকা পালন করি, আমি হাবিব এবং অসীম কুমার উকিলের নেতৃত্বে ছাত্রলীগ করে আসছি। তখন তারা ছাত্রলীগের প্রেসিডেন্ট - সেক্রেটারি ছিল ।

এছাড়াও ৯০ সালে স্বৈরাচার পতনের পর ৯১ সালে এখানে চার দলীয় জোটের মনোনীত হয় সাইফুদ্দিন আহমেদ মানিক / তৎকালীন কমিউনিস্ট পার্টির তিনি ছিলেন সাধারণ সম্পাদক/ একানব্বই সালে তাঁর নির্বাচনে জয়যুক্ত করার জন্য ঢাকা-৫ এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্তে চসে বেরিয়েছি। একানব্বই সালে দুর্ভাগ্যক্রমে স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি জামাত-বিএনপি অধিষ্ঠিত হওয়ার পর আমরা মনে করলাম সারা বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী জনগণ নেতাকর্মীরা যে জামাত শিবিরর বিরুদ্ধে আন্দোলন এবং স্বাধীনতা বিরোধী আন্দোলন না করলে আর কোন উপায় নাই। আবার নিশ্চয়ই মনে আছে জাহানারা ইমামের নেতৃত্বে ঘাতক দালাল জাতীয় সমন্বেয় কমিটি গঠন করা হয়েছিল। রাজ্জাক ভাই, মায়াভাই এরা আমাদের রাজনৈতিক ভাবেই এই কমিটির দায়িত্বে ছিল। তাদের নেতৃত্বে তৎকালীন বৃহত্তর ডেমরা থানার জাতীয় সমন্বয় কমিটির আমি আহবায়ক হিসেবে চারদলীয় জোটের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়া জামাত-শিবিরের বিরুদ্ধে এই অঞ্চলের জনগণ মুক্তিযুদ্ধ চেতনায় বিশ্বাসী সমস্ত জনগণকে সাথে নিয়ে তাদের বিরুদ্ধে রাজপথে আন্দোলন শুরু করি। তখন আমি ছাত্র, মাস্টার্সে পরি, এলএলবিতে পড়ি। তারপর আমার চাচা ৭০ সালে এমসি এডভোকেট হায়দার ইসলাম খান এই অঞ্চলের জাতীয় রাজনীতির যিনি প্রধান, তেজগাঁও সার্কেল এর সমস্ত নেতাকর্মীদের সমন্বয় করেছেন তিনি হলেন সত্তর সালের এমসি এডভোকেট হায়দার ইসলাম খান। আমার শ্রদ্ধাভাজন চাচা, তিনি মারা যান ৯৪ সাসে। তিনি মারা যাওয়ার পর সেই শূন্যস্থানে আমাকে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীর কপশনকৃত মেম্বার করে নিলেন। তার পর থেকে খালেদা জিয়া বিরোধী আন্দোলন আওয়ামী লীগের সমন্বয়ে একসাথে চালিয়ে যাচ্ছি। ১৯৯৬সালে পুনরায় নির্বাচনে আসি এবং সেই নির্বাচনে জয় যুক্ত হওয়ার পর জননেত্রী শেখ হাসিনা নেতৃত্বে আমাদের এখানে একটি কাউন্সিল হয়। সেই কাউন্সিলে আমি যুগ্মসাধারণ সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হই। এরপর ছয় বছর পর আরেকটি কাউন্সিল হয় সেখানে আমাকে জননেত্রী শেখ হাসিনা পুনরায় যুগ্মসাধারণ সম্পাদক হিসেবে নিয়োগ দান করেন। ২০১৬সালে আমাকে ডেবরা থানার প্রেসিডেন্ট করেন জননেত্রী শেখ হাসিনা। এই দীর্ঘ পথে বঙ্গবন্ধুর নীতি এবং জননেত্রী শেখ হাসিনার নীতি বাইরে কখনো পা রাখি নাই। জননেত্রী শেখ হাসিনা যে নীতি দিয়েছে যে নির্দেশ দিয়েছে আমরা সেই অনুযায়ী কাজ করে যাচ্ছি। অতএব জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে আমাদের ছোট্ট আবদার থাকতেই পারে ঢাকা-৫ নির্বাচনী আসনের জনগণের পাশে থেকে তাদের সুখ দুঃখের পাশে থেকে এবং জননেত্রী শেখ হাসিনার পাশে থেকে ছোট্ট কাজ করার সুযোগ যদি পাই সে আশাটা এখন করি, যেহেতু এ অঞ্চলের মাননীয় সংসদ সদস্য মারা গিয়েছেন তার জায়গায় কেউ-না-কেউ নমিনি হবে, আমি ডেমরা থানার সভাপতি হিসাবে জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে এই প্রার্থনা করি, জননেত্রী শেখ হাসিনা এই অঞ্চলে কাজ করার জন্য আমাকে তার পাশে থেকে কাজ করার সুযোগ দিবেন।

ওকে নিউজ oknews24bd.com: আপনার কাছে জানতে চাইবো আপনাকে যদি সুযোগ দেয় এই তিন বছর থেকে সাড়ে তিন বছরে আপনি কি কি উন্নয়ন মূলক কাজ করতে পারবেন?

রফিকুল ইসলাম মাসুদ: এখানে তো অনেকেরই অনেক কিছু দাবি আছে। যেমন একটা হসপিটালের দাবি আছে এখানে একটি সরকারি কলেজের দাবি আছে এখানে শ্রমিকদের কিছু দাবি দাওয়া আছে, এই কাজগুলা এগিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করব। পাশাপাশি এখানে যে সরকারের উন্নয়নমূলক কাজ গুলো রয়েছে সেগুলো জনগণের মধ্যে ঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করার চেষ্টা করব। পাশাপাশি এখানে কিছু অনিয়ম আছে সেগুলো নিয়ম তান্ত্রিক করারও যথাযথ চেষ্টা করব।

ওকে নিউজ oknews24bd.com: গত দেড় বছরে আপনি কি মনে করেন যে এই এলাকায় ঠিকমত কাজ হয়েছে?

রফিকুল ইসলাম মাসুদ: আমাদের যিনি মাননীয় সংসদ ছিলেন তিনি দীর্ঘদিন বার্ধক্যজনিত রোগে ভোগছিলেন এবং তার বয়স ছিল আশির উপড়ে। তার কাছে যে এনার্জিটিক কাজগুলো আসা করেছে সেই এনার্জির এ কাজগুলো আমরা পাইনি তার বয়সে কারণে, তার বয়সের একটি লিমিটেশন হারিয়ে ফেলেছিল যার কারণে তিনি অনেক কিছু চিন্তা করার পরেও সেটা বাস্তবায়ন করতে পারেনি। তবে আমরা চাই তার এই অঞ্চলের জনগণের জন্য যে কাজ করার ইচ্ছে ছিল সেই কাজগুলো বাস্তবায়ন করার জন্য যদি জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাদের পাশে থাকে এবং আমাকে মনোনীত করেন, তবে অতি শীঘ্রই আমি এই কাজগুলো বাস্তবায়ন করার চেষ্টা করব।

ওকে নিউজ oknews24bd.com: সামাজিক কি কি দায়িত্ব পালন করার চিন্তা আছে?
রফিকুল ইসলাম মাসুদ: সামাজিক তো অনেক দায়িত্ব কর্তব্য আছে যেটা আমি করতে চাই। যেমন ধরেন আমাদের এখানে বড় একটি লাইব্রেরী নাই, লাইব্রেরী দরকার। পাশাপাশি এখানে মাদকের কিছু কিছু সমস্যা রয়েছে এই মাদকাশক্তদের জন্য একটি সেন্টার করতে চাই, এই অঞ্চলে ছোট ছোট হসপিটাল ডায়াগনস্টিক সেন্টার কমিউনিটি হসপিটাল করতে চাই, এখানে শিশুদের খেলার মাঠ ছিল যেগুলা এখন নেই সেগুলো আবার পুনরুদ্ধার করে ছেলেমেয়েদের খেলার জন্য প্রোভাইড করলে কিছুটা অপরাধ দূর হবে, আমি সেটাই চেষ্টা করব।

ওকে নিউজ oknews24bd.com: আপনাদের এখানে কি মাদকের অবস্থা বেশি কি?
রফিকুল ইসলাম মাসুদ: আমাদের এখানে মাদকের অবস্থা খুব বেশি না, তবে পুলিশ এবং সরকারের সহায়তায় জিরো টলারেন্সে আছে, সেটা আমি বলবো আমি কিছুটা হলেও দুর্নীতি এবং মাদক নিয়ন্ত্রণ করতে পেরেছে, তবে বলব না সম্পূর্ণভাবে শেষ হয়েছে।

ওকে নিউজ oknews24bd.com: করুণা কালীন সময়ে ঢাকা -৫ আসনের জনগণের উদ্দেশ্যে কি বলবেন?

রফিকুল ইসলাম মাসুদ: এই ঢাকা ৫ আসন এর সমস্ত জনগণকে বলতে চাই সরকারের বিধি অনুযায়ী চলবেন মাক্স ব্যবহার করবেন, নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রেখে চলবেন, ঘরে থাকবেন এবং সরকার যে যে এলাকায় লকডাউন দিয়েছে তা সঠিকভাবে মেনে চলবেন।

ওকে নিউজ oknews24bd.com: যদি সরকার নির্বাচন দিয়ে দেয় তাহলে আপনি জনগণকে কাছে কি চাইবেন?
আমি জনগণের কাছে শুধু ভালোবাসা চাই, আমি আমার জনগণকে আমার পাশে চাই, আর কিছুই চাই না।

আপনাকে দল থেকে মনোনয়ন দেয়া হক এবং অঅপনি আপনার ঢাকা-৫ আসনের জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়ে তাদের সেবাসব দেশ তথা জাতিয় কল্যানে কাজ করতে পারেন সেইটা চাই, ওকে নিউজ টুয়েন্টিফোর বিডি ডট কম এর পক্ষ থেকে সময় দেয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

তন্নি কস্তা, বিশেষ প্রতিবেদক-oknews24bd.com

বিস্তারিত এ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলামের মুখেই শুনে নিন-                      আপনি যদি উপ-নির্বাচনে অংশ গ্রহণের জন্য মনোনয়ন প্রত্যাশি হয়ে থাকেন এবং নির্বাচনের পরে আপনার এলাকার জনগণের জন্য কি কাজ করতে চান তা জানাতে তাহলে কথা বলতে পারেন। যোগাযোগ-০১৯১১-৪৭৬১৫৭ এই নাম্বারে।

ভোলাহাটে অস্তিত্ব নেই শিল্পকলা একাডেমীর


এই নিউজ মোট   1073    বার পড়া হয়েছে


নির্বাচন



বিজ্ঞাপন
ওকে নিউজ পরিবার
Shekh MD. Obydul Kabir
Editor
See More » 

প্রকাশক ও সম্পাদক : শেখ মো: ওবাইদুল কবির
ঠিকানা : ১২৪/৭, নিউ কাকরাইল রোড, শান্তিনগর প্লাজা (২য় তলা), শান্তিনগর, ঢাকা-১২১৭।, ফোন : ০১৬১৮১৮৩৬৭৭, ই-মেইল-oknews24bd@gmail.com
Powered by : OK NEWS (PVT) LTD.