09:10am  Sunday, 27 Sep 2020 || 
   
শিরোনাম
 »  ২৭ সেপ্টেম্বর; আজকের দিনে জন্ম-মৃত্যুসহ যত ঘটনা     »  শিবগঞ্জ পৌরসভার দুই কি:মি: রাস্তা নির্মানের উদ্বোধন     »  মোবারকপুর ইউপি’র সংরক্ষিত শুন্য আসনে নির্বাচন ২০ অক্টোবর     »  করোনায় মারা গেছেন মহিলা এমপি জুঁইয়ের ভাই ড.শহীদ      »  তামাক কোম্পানির অপতৎপরতা বন্ধে আইন সংশোধন চায় তামাকবিরোধী নেতৃবৃন্দ     »  ভিপি নুরের বিরুদ্ধে মামলার নিন্দা জানিয়েছে সর্বদলীয় ছাত্র ঐক্য     »  ভেন্টিলেশন সাপোর্টে অ্যাটর্নি জেনারেল, দোয়া চেয়েছে পরিবার     »  কক্সবাজারের পুলিশ বদলিতে রেকর্ড; এক আদেশেই বদলি ১০৭৫ জন      »  বাংলাদেশের বিপুল পরিমাণ ভ্যাকসিন উৎপাদনের সক্ষমতা রয়েছে      »  কর্মসংস্থান ব্যাংকের ‘বঙ্গবন্ধু যুব ঋণ’ একটি কার্যকর পদক্ষেপ।   



বাংলাদেশ সরকারের অনুরোধে সাড়া এবং তথ্য দেয়নি টিকটক



বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে টিকটকের কাছে দুটি অ্যাকাউন্ট সম্পর্কে তথ্য জানতে চাওয়া হয়েছিল। এ অনুরোধে সাড়া দেয়নি টিকটক কর্তৃপক্ষ। তারা কোনো তথ্যও দেয়নি।

ইন্টারনেটে ভিডিও প্রচার বা প্রকাশের জনপ্রিয় অ্যাপ টিকটকের মালিক প্রতিষ্ঠান বাইটড্যান্স আজ মঙ্গলবার নিজ ওয়েবসাইটে তাদের ট্রান্সপারেন্সি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। তাতে দেখা যায়, ইংরেজি অক্ষর ক্রম অনুযায়ী সাজানো তালিকায় চতুর্থ স্থানে রয়েছে বাংলাদেশ। মোট ৪২টি দেশ টিকটকের কাছে তথ্য চেয়ে অনুরোধ করেছে বলে সেখানে উল্লেখ রয়েছে।

ওই তালিকায় এ বছরের প্রথম ছয় মাস অর্থাৎ, ১ জানুয়ারি থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত সময় বিবেচনা করা হয়েছে। ওই সময়ে বিশ্বে ১০ কোটি ৪৫ লাখ ৪৩ হাজার ৭১৯টি ভিডিও সরিয়ে ফেলে টিকটক। নীতিমালা লঙ্ঘন ও কমিউনিটি নীতিমালা না মানায় এসব ভিডিও সরিয়ে ফেলা হয়। প্রতিবেদন অনুযায়ী, এ সংখ্যা টিকটকে বছরের প্রথম ছয় মাসে আপলোড হওয়া ভিডিওর এক শতাংশেরও কম।

টিকটক জানিয়েছে, তারা সবচেয়ে বেশি ভিডিও সরিয়েছে ভারতীয়দের। বছরের প্রথমার্ধে তিন কোটি ৭০ লাখের বেশি ভিডিও সরিয়েছে তারা। গত জুন মাসে ভারত সরকার টিকটকসহ ৫৮টি চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করে। অ্যাপল অ্যাপ স্টোর ও গুগল প্লে স্টোর ভারতে অ্যাপ দুটি সরিয়ে দেয় এবং টেলিকম প্রতিষ্ঠানগুলো ওই প্ল্যাটফর্মে ঢোকা বন্ধ করে দেয়।

টিকটক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তারা ভারতে যেসব ভিডিও সরিয়েছে তার ৯৬.৪৬ শতাংশ ভিডিও কোনো অভিযোগ পাওয়ার আগেই সরানো হয়। এর মধ্যে ৯০.৩২ শতাংশ ভিডিও কেউ দেখেনি।

টিকটক আরও জানিয়েছে, টিকটক ব্যবহারকারী বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তাদের কাছে বিভিন্ন সরকারের পক্ষ থেকে আইনি অনুরোধ পাওয়ার হার বেড়ে গেছে। এর মধ্যে ৪২টি দেশ বা মার্কেট থেকে ব্যবহারকারীর তথ্য চেয়ে এক হাজার ৭৬৮টি অনুরোধ করা হয়। এর মধ্যে ১২১টি অনুরোধ সরকারি সংস্থার পক্ষ থেকে ১৫টি ভিন্ন দেশের কনটেন্ট সরিয়ে ফেলার বা আটকে দেওয়ার অনুরোধ করা হয়। তবে টিকটকের পক্ষ থেকে অঞ্চলভিত্তিক সুনির্দিষ্ট তথ্য প্রকাশ করা হয়নি। টিকটকের পক্ষ থেকে ১০ হাজার ৬২৫টি কপিরাইট করা কনটেন্ট সরানোর অনুরোধ পর্যালোচনা করেছে। কনটেন্ট সরানোর দিক থেকে ভারতের পরই রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, পাকিস্তান, ব্রাজিল ও যুক্তরাজ্য।

টিকটক তাদের প্রতিবেদনে বলেছে, ব্যবহারকারীর গোপনীয়তা এবং অধিকারকে সম্মান জানিয়ে বৈধ আইন প্রয়োগের অনুরোধগুলো বিবেচনা করে তারা। ব্যবহারকারীর তথ্য পেতে আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে তথ্যের ধরনের জন্য প্রয়োজনীয় উপযুক্ত আইনি নথি সরবরাহ করতে হয়। এর মধ্যে আদালতের আদেশ, ওয়ারেন্ট বা জরুরী অনুরোধ অন্তর্ভুক্ত। তবে সীমিত জরুরি পরিস্থিতিতে টিকটক আইনি প্রক্রিয়া ছাড়াই ব্যবহারকারীর তথ্য প্রকাশ করে থাকে।

হাতি কিনলেন কৃষক দুলাল, স্বপ্নাদেশ পূরণ করলেন স্ত্রীর


এই নিউজ মোট   686    বার পড়া হয়েছে


তথ্য-প্রযুক্তি



বিজ্ঞাপন
ওকে নিউজ পরিবার
Shekh MD. Obydul Kabir
Editor
See More » 

প্রকাশক ও সম্পাদক : শেখ মো: ওবাইদুল কবির
ঠিকানা : ১২৪/৭, নিউ কাকরাইল রোড, শান্তিনগর প্লাজা (২য় তলা), শান্তিনগর, ঢাকা-১২১৭।, ফোন : ০১৬১৮১৮৩৬৭৭, ই-মেইল-oknews24bd@gmail.com
Powered by : OK NEWS (PVT) LTD.