01:20am  Friday, 25 Jun 2021 || 
   
শিরোনাম
 »  রোববার, জুন ১৩, ২০২১, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮     »  পল্লী বিদ্যুৎ ঃ- ১ ফ্যান ১ এনার্জি লাইট ১ মোবাইল চার্জার, বিল ৭৯ হাজার টাকা!     »  ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় মৃত্যু কমেছে। নতুন করে ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।      »  খালেদা জিয়ার ফুসফুস থেকে পানি সরানোর জন্য বুকে বসানো সর্বশেষ পাইপটিও খুলে ফেলা হয়েছে।     »  ইয়াস জলোচ্ছ্বাসের আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত ২৭ উপজেলা     »  স্বাস্থ্যমন্ত্রী বললেন ব্ল্যাক ফাঙ্গাস নিয়ে কেউ আতঙ্কিত হরবন না      »  জানা যাবে কাল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবে কিনা?     »  উপকূলজুড়ে আতঙ্ক ধেয়ে আসছে ইয়াস      »  প্রধানমন্ত্রীর আধুনিক টিএসসি ভবন নির্মাণের নির্দেশ     »  টাইগারদের এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জয়   



গোল্ডেন মনিরের মামলায় কাউন্সিলর ও আ. লীগ নেতা আসামি



সোনা চোরাচালানসহ বিভিন্ন অবৈধ কারবারের মাধ্যমে হাজার কোটি টাকার মালিক হয়েছেন আলোচিত ব্যবসায়ী মনির হোসেন ওরফে গোল্ডেন মনির। তার স্ত্রী, ছেলে ও নিজের নামে সরকারি ২০টিসহ ৩০টি প্লট, ১৫টি ভবন, একটি আবাসন প্রতিষ্ঠান এবং দুটি গাড়ির শোরুম রয়েছে। ব্যাংকে তাঁর নামে আছে ৭৯১ কোটি টাকা। এমন অবৈধ সম্পদের তথ্য পেয়ে তাঁর বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিংয়ের মামলা করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

মঙ্গলবার (১১ মে) বিকেলে রাজধানীর বাড্ডা থানায় মনিরসহ ১০ জনের নামে মামলাটি দায়ের করা হয়। এতে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার চেয়ারম্যান ও সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক রিয়াজ উদ্দিন (৬৩), রিয়াজের ভাই হায়দার আলী (৫৬), ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৪৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শফিকুল ইসলাম ওরফে শফিক ওরফে সোনা শফিকে (৫২) আসামি করা হয়েছে। তারা সবাই মনিরের ব্যবসা ও অবৈধ কর্মকাণ্ডের সহযোগী।

অপর আসামিরা হলেন- গোল্ডেন মনিরের সহযোগী আবদুল হামিদ, মনিরের স্ত্রী রওশন আক্তার, ছেলে রাফি হোসেন, বোন নাসিমা আক্তার, নাসিমার স্বামী হাসান আলী খান, মনিরের আরেক ভগ্নিপতি নাহিদ হোসেন।

সিআইডির অর্গানাইজড ক্রাইমের বিশেষ পুলিশ সুপার হুমায়ুন কবির বলেন, কারাগারে থাকা গোল্ডেন মনিরকে মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনের মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হবে। এজাহারভুক্ত বাকি নয় আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।’

সিআইডি সূত্র জানায়, পরিদর্শক ইব্রাহিম হোসেন বাদী হয়ে বাড্ডা থানায় মামলাটি করেন। পাঁচ মাস সরেজমিন অনুসন্ধান করে সিআইডি গোল্ডেন মনির ও তাঁর সহযোগীদের বিষয়ে এসব তথ্য পেয়েছে। গোল্ডেন মনির সোনা চোরাচালান, জাল-জালিয়াতির মাধ্যমে ভূমি দখল ও ভয় দেখিয়ে চাঁদাবাজি করে এতসব অর্থসম্পদের মালিক হয়েছেন। অপরাধলব্ধ আয় দিয়ে গোল্ডেন মনির উত্তরার ১৩ নম্বর সেক্টরের সোনারগাঁও জনপথ রোডে গ্র্যান্ড জমজম টাওয়ার এবং উত্তরার ১১ নম্বর সেক্টরের সাফা টাওয়ারের অন্যতম মালিক হন। ঢাকায় তাঁর ৯০ কাঠার বিভিন্ন আয়তনের সরকারি ২০টিসহ ঢাকা ও কেরানীগঞ্জে ২৫টি প্লট রয়েছে। তার মধ্যে বাড্ডায় রাজউকের (রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ) আড়াই কাঠার ১৯টি প্লট, রাজউক পূর্বাচলে ১০ কাঠার একটি প্লট, বারিধারা জে ব্লকে সাড়ে আট কাঠা করে দুটি প্লট, খিলক্ষেতে পৌনে ২ কাঠার একটি প্লট, তুরাগের নলভোগ মৌজায় ১২ কাঠা জমি রয়েছে।

এ ছাড়া গোল্ডেন মনিরের নামে কেরানীগঞ্জের চররোহিতপুরে আড়াই বিঘা জমি রয়েছে। আবাসন প্রতিষ্ঠান স্বদেশ প্রপার্টিজে (বাড্ডা) তাঁর মালিকানা রয়েছে। গোল্ডেন মনিরের নামে ১২৯টি ব্যাংক হিসাবে ৭৯১ কোটি পাঁচ লাখ ৯৬ হাজার ৫২৩ টাকা পাওয়া গেছে বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, মনির এই আয়ের একটি অংশ সংঘবদ্ধ অপরাধী চক্রের সদস্যদের নিয়ে পরস্পর যোগসাজশে যৌথ ও একক নামে ব্যবসায় বিনিয়োগ করে স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তিতে রূপান্তর করেছেন। তাঁর মালিকানাধীন অটো কার সিলেকশন লিমিটেডের হিসাব থেকে রাজউক কর্মচারী বহুমুখী কল্যাণ সমিতির হিসাবে পাঁচ কোটি টাকা পাঠানোর তথ্য পাওয়া গেছে, যা সন্দেহজনক।

মামলায় বলা হয়েছে, কাউন্সিলর শফিকুল গোল্ডেন মনিরের অপরাধ কর্মকাণ্ডের সহযোগী। তিনি ঢাকায় হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পার্কিং ইজারা নিয়ে গোল্ডেন মনিরের সোনা চোরাচালানে সহযোগিতা করেছেন। সোনা চোরাচালানের অবৈধ আয় দিয়েই গোল্ডেন মনির ও তাঁর সহযোগীরা উত্তরায় ১৪ তলা জমজম টাওয়ার নির্মাণ করেছেন, যার একাংশের মালিক ওয়ার্ড কাউন্সিলর শফিকুল। মামলায় সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক রিয়াজ উদ্দিনকে গোল্ডেন মনিরের অপরাধ কর্মকাণ্ডের আরেক সহযোগী হিসেবে বর্ণনা করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ২০ নভেম্বর রাজধানীর মেরুল বাড্ডার বাসায় অভিযান চালিয়ে মনিরকে মাদক, অস্ত্রসহ আটক করে র‍্যাব। গ্রেপ্তারের পর তাঁর বিরুদ্ধে বাড্ডা থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা হয়। এছাড়া মতিঝিল ও রমনা থানায় তাঁর বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য ও দুদক আইনে আরো চারটি মামলা রয়েছে। মনির বর্তমানে কারাগারে।

সোনারগাঁয়ের রিসোর্ট কাণ্ডে হেফাজত নেতা চিহ্নিত সন্ত্রাসী সানি গ্রেপ্তার


এই নিউজ মোট   6615    বার পড়া হয়েছে


দূর্ণীতি



বিজ্ঞাপন
ওকে নিউজ পরিবার
Shekh MD. Obydul Kabir
Editor
See More » 

প্রকাশক ও সম্পাদক : শেখ মো: ওবাইদুল কবির
ঠিকানা : ১২৪/৭, নিউ কাকরাইল রোড, শান্তিনগর প্লাজা (২য় তলা), শান্তিনগর, ঢাকা-১২১৭।, ফোন : ০১৬১৮১৮৩৬৭৭, ই-মেইল-oknews24bd@gmail.com
Powered by : OK NEWS (PVT) LTD.