12:47pm  Tuesday, 21 Jan 2020 || 
   
শিরোনাম



শিক্ষার্থীর অভিভাবকরা হরিজন শিশুকে স্কুলে যেতে বাধ দিলেন



মৌলভীবাজারের কুলাউড়া পৌর শহরের পরিনগর এলাকার হরিজন সম্প্রদায়ের মনা বাসপর। তার বড় ছেলে বিরাট বাসপর এ বছরে ছয় বছরে পা দিয়েছে। ছেলেকে পড়াশুনা করিয়ে প্রতিষ্ঠিত করার স্বপ্ন মনা ও তার স্ত্রীর, যাতে তাদের মতো সমাজে তিরস্কার ও অবহেলা সইতে না হয়।

এজন্য বিরাটকে স্থানীয় একটি কিন্ডার গার্টেন স্কুলে প্রথম শ্রেণিতে ভর্তি করেছেন। বিদ্যালয়ের শর্তানুযায়ী, কিনে দিয়েছেন ড্রেস, বই ও ব্যাগ । কিন্তু বাধ সাধেন কয়েক শিক্ষার্থীর অভিভাবকরা। তারা বিরাটকে স্কুলে নিতে নিষেধ করেন। হুমকি দেন, বিরাটকে নেওয়া হলে তারা তাদের সন্তানদের নিয়ে অন্য স্কুলে ভর্তি করাবেন।

এই ঘটনায় প্রতিকার চেয়ে বৃহস্পতিবার মনা বাসপর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর একটি লিখিত আবেদন করেছেন। পরে স্কুল কর্তৃপক্ষকে নিজ কার্যালয়ে ডেকে এনে ওই স্কুলছাত্রকে ক্লাসে ফিরিয়ে নিতে নির্দেশ দেন ইউএনও।

রোববার ওই শিশুশিক্ষার্থীর বাবা মিনা বাসপরের সঙ্গে এই প্রতিবেদকের কথা হয়। তিনি জানান, গত ১৩ জানুয়ারি কুলাউড়া ভূমি অফিস রোডে শিবির এলাকায় অবস্থিত অগ্রদূত চাইল্ড কেয়ার হোমস্ নামের একটি স্কুলে যথাযথ নিয়ম মেনে ছেলেকে ভর্তি করার তিনি। কিন্তু কিছু অভিভাবকদের বাঁধার কারণে ভর্তির পরদিন বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাকে ফোন করে ছেলেকে স্কুলে পাঠাতে নিষেধ করেন।

মিনা বাসপর বলেন, বিষয়টি নিয়ে স্কুল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বললে তারা জানায়, আমরা হরিজন সম্প্রদায় বলে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। স্কুলেও আমার সন্তান বৈষম্যের শিকার। আমরা তো পরিশ্রম করে আয় করি। সামাজিকভাবে কেন এমন বৈষম্যের শিকার হবো?

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নিখিল বর্ধন বলেন, আমরা ওই শিশুর ভর্তি নিয়েছিলাম। কিন্তু তার সহপাঠীদের অভিভাবকেরা তাকে নেওয়ার বিরোধিতা করেছেন । না হলে তারা তাদের সন্তাদের আমাদের বিদ্যালয় থেকে অন্যত্র সরিয়ে নেবেন বলেও জানিয়েছেন। তাই প্রতিষ্ঠানের স্বার্থ চিন্তা করে আমাদের এমন সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছিল।

এ সময় বিরোধিতাকারী অভিভাবকদের নাম জানতে চাইলে তিনি তা জানাতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এ টি এম ফরহাদ চৌধুরী বলেন, শিক্ষা সবার মৌলিক অধিকার। বিরাট যে সম্প্রদায়েরই হোক শিক্ষা অর্জনের অধিকার থেকে কেউ তাকে বঞ্চিত করতে পারবে না। লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর স্কুল কর্তৃপক্ষকে আমার কার্যালয়ে ডেকে এনে ওই স্কুলছাত্রকে ক্লাসে ফিরিয়ে নিতে নির্দেশ দিয়েছি। এই বৈষম্য রোধে স্কুল কর্তৃপক্ষ ও অভিভাবকদের নিয়ে একটি সচেতনতামূলক সভার উদ্যোগ নিয়েছি।


এই নিউজ মোট   30    বার পড়া হয়েছে


শিশু অধিকার



বিজ্ঞাপন
ওকে নিউজ পরিবার
Shekh MD. Obydul Kabir
Editor
See More » 

প্রকাশক ও সম্পাদক : শেখ মো: ওবাইদুল কবির
ঠিকানা : ১২৪/৭, নিউ কাকরাইল রোড, শান্তিনগর প্লাজা (২য় তলা), শান্তিনগর, ঢাকা-১২১৭।, ফোন : ০১৬১৮১৮৩৬৭৭, ই-মেইল-oknews24bd@gmail.com
Powered by : OK NEWS (PVT) LTD.