অর্থ মন্ত্রণালয়ের পরিপত্ত্রে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও ইউজিসির কর্মকর্তাদের অস্ট্রেলিয়া সফর বাতিল

প্রচ্ছদ শিক্ষা

শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) ১২ কর্মকর্তার অস্ট্রেলিয়া সফর বাতিল করা হয়েছে। বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া সরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশ সফর বন্ধের বিষয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ের পরিপত্র জারির চার দিন পর সোমবার এক আদেশে ১২ কর্মকর্তার সফর বাতিল করলো শিক্ষা মন্ত্রণালয়। তবে সংশ্লিষ্টদের দাবি, মন্ত্রণালয়ের এমন সিদ্ধান্তে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের ক্ষতি হয়েছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, অস্ট্রেলিয়ার একাধিক বিশ্ববিদ্যালয় পরিদর্শনের জন্য ইউজিসির দুজন সদস্য, সচিবসহ ইউজিসির ১১ কর্মকর্তা এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিবের একান্ত সচিবের আগামী ২৮ মে অস্ট্রেলিয়ায় যাওয়ার কথা ছিল।

ইউজিসি সচিব ড. ফেরদৌস জামান এ বিষয়ে সমকালকে বলেন, আমাদের দেশ উন্নয়নশীল হওয়ায় অস্ট্রেলিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়গুলো বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের আর টিউশন ফি মওকুফ করবে না। এর ফলে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার জন্য অস্ট্রেলিয়া যাওয়া অনেকটা সংকুচিত হয়ে যাবে।

তিনি আরও বলেন, এই বিষয়ে উদ্যোগ নিতে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার প্রায় দশটি বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে কথা হয়। তারা আমাদের আশ্বাস দিয়েছিল, বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা শুধুমাত্র প্লেন ফেয়ার ও থাকার খরচ দিলেই অস্ট্রেলিয়াতে পড়তে পারবে। সেক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের থেকে কোনো ধরনের টিউশন ফি লাগবে না। মূলত এই বিষয়ে অস্ট্রেলিয়ার প্রায় ১০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে চুক্তি হওয়ার কথা ছিল।

ইউজিসি সচিব ফেরদৌস জামান জানান, কিন্তু ১২ মে অর্থ মন্ত্রণালয়ের বিদেশ সফরে সরকারি কর্মকর্তাদের উপর বিধি-নিষেধ আসায় এই বিষয়ে গত বৃহষ্পতিবার আমরা সভা করি। সভায় এই অবস্থায় বিদেশ সফরে না যাওয়ার জন্য সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সোমবার শিক্ষা মন্ত্রণালয় সে বিষয়েই প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

অস্ট্রেলিয়া সফর বাতিল হওয়ায় বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের ক্ষতি হয়েছে কিনা জানতে চাইলে ফেরদৌস জামান বলেন, তা বলা যেতেই পারে। কারণ পরবর্তীতে এই চুক্তি করা সম্ভব হবে কী না, তা বলা কঠিন।

আরো পড়ুন : রাত ৮টার মধ্যে দোকানপাট বন্ধ করলে যানজট কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসবে

Share The News

Leave a Reply

Your email address will not be published.