চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সকে ৫৫ রানে হারিয়ে রংপুর রাইডার্সের দুরন্ত জয়

খেলাধুলা প্রচ্ছদ বিনোদন

ক্রীড়া প্রতিবেদক : দুরন্ত জয় পেল রংপুর রাইডার্স। গতকাল মিরপুর স্টেডিয়ামে নিজেদের ষষ্ঠ ম্যাচে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সকে ৫৫ রানে হারিয়েছে তারা। এই জয়ে ছয় ম্যাচে ছয় পয়েন্ট সংগ্রহ করল রংপুর।

বিপিএল চট্টগ্রামপর্ব শেষ করে ফের ঢাকায় ফিরেছে। গতকাল ঢাকায় দ্বিতীয় পর্বের শুরুর দিনেই দারুণ জয় পেল রংপুর রাইডার্স। টস হেরে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নামেন নুরুল হাসান সোহানরা। শুরুটা ভালো হয়নি তাদের। মেহেদি হাসান ১ রানে, পারভেজ হোসেন ইমন ৬ রানে আউট হয়ে সাজঘরে ফেরেন। পাঁচ ওভারে দলের সংগ্রহ ছিল কেবল ২৬ রান। তবে শুরুর দিকের এই ধাক্কাটা সামলে নেন মোহাম্মদ নাঈম ও শোয়েব মালিক। মোহাম্মদ নাঈম ২৯ বলে ৩৪ রান করেন ৫টি চার ও ১টি ছক্কার মারে। তিনি সাজঘরে ফিরলে শোয়েব মালিক দলের হাল ধরেন। মাত্র ৪৫ বলে ৭৫ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন তিনি। তার এই ইনিংসে ৫টি চার ও ৫টি ছক্কার মার ছিল। এবারের বিপিএলে মোট ২২৫ রান করেছেন শোয়েব মালিক। চলতি আসরে রান সংগ্রাহকের তালিকায় চার নম্বরে উঠে এসেছেন তিনি। বিপিএলে এবার ২৭৫ রান করে শীর্ষে আছেন সাকিব আল হাসান। গতকাল রংপুর রাইডার্সের পক্ষে আজমতুল্লাহ ওমরজাই ২৪ বলে ৪২ রান করেন ১টি চার ও ৪টি ছক্কার মারে। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৭৯ রান করে রংপুর রাইডার্স। চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের মেহেদি হাসান রানা ৩৯ রানে ৩টি, শুভাগত হোম ১৩ রানে ২টি এবং বিজয়াকান্ত ৪১ রানে ১টি উইকেট শিকার করেন।

শোয়েব মালিকের পর বল হাতে হারিস রউফ গতির ঝড় তোলেন। উইকেট শিকার করেন ৩টি। এছাড়াও রংপুর রাইডার্সের পক্ষে রকিবুল হাসান ২টি এবং আজমতুল্লাহ ওমরজাই, হাসান মাহমুদ ও মেহেদি হাসান ১টি করে উইকেট শিকার করেন। রউফদের দুরন্ত বোলিংয়ে মাত্র ১২৪ রানেই (১৬.৩ ওভারে) অলআউট হয় চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। ইনিংসের শুরু থেকেই একের পর এক আক্রমণ করতে থাকেন রংপুর রাইডার্সের বোলাররা। উসমান খান ৪, খাজা মোহাম্মদ নাফে ৬, তৌফিক খান ০ রানে আউট হন। মাত্র ১১ রানেই তিন উইকেট হারিয়ে কঠিন পরিস্থিতিতে পড়ে যায় চট্টগ্রাম। তবে দারবিশ রাসুলির ১৭ বলে ২১, শুভাগত হোমের ৩১ বলে ৫২ ও জিয়াউর রহমানের ১২ বলে ২৪ রান আশা জাগিয়ে তোলে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের মধ্যে। তবে শেষদিকে বিজয়াকান্ত ৬, মেহেদি হাসান ০ এবং তাইজুল ১ রানে আউট হন। ম্যাচসেরার পুরস্কার জিতেছেন শোয়েব মালিক।

রংপুর রাইডার্স চট্টগ্রাম পর্বে খুব একটা ভালো করতে পারেনি। সাগরিকায় তিন ম্যাচ খেলে কেবল একটিতে জয় পেয়েছে তারা। ঢাকা প্রথম পর্বে দুই ম্যাচ খেলে এক ম্যাচে জয় ও এক ম্যাচে পরাজিত হয়েছিল রংপুর। এবার ঢাকায় দ্বিতীয় পর্বে খেলতে নেমেই জয় পেল দলটা। রংপুর রাইডার্স সিলেট পর্বে দুটি ম্যাচ খেলবে। ২৭ জানুয়ারি সিলেট স্ট্রাইকারস ও ৩০ জানুয়ারি ঢাকা ডমিনেটর্সের মুখোমুখি হবে রংপুর। এরপর ঢাকায় ফিরে আরও চারটি ম্যাচ খেলবে তারা। প্লে-অফ খেলতে হলে শীর্ষ চারে থাকতে হবে নুরুল হাসান সোহানদের।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

রংপুর রাইডার্স : ১৭৯/৬, ২০ ওভার (শোয়েব মালিক ৭৫*, আজমাতুল্লাহ ওমরজাই ৪২, মোহাম্মদ নাঈম ৩৪ ; মেহেদি হাসান রানা ৩/৩৯, শুভাগত হোম ২/১৩, বিজয়াকান্ত ১/৪১)।

চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স : ১২৪/১০, ১৬.৩ ওভার (শুভাগত হোম ৫২, জিয়াউর রহমান ২৪, দারবিশ রাসুলি ২১, হারিস রউফ ৩/১৭, রাকিবুল হাসান ২/২৪, মেহেদি হাসান ১/৪, আজমাতুল্লাহ ওমরজাই ১/২৩, হাসান মাহমুদ ১/৩৪)।

ফল : রংপুর রাইডার্স ৫৫ রানে জয়ী। ম্যাচসেরা : শোয়েব মালিক।

আরো পড়ুন : আমি নির্বাচিত হলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পা ছুয়ে এলাকার উন্নয়ন করব

Share The News

Leave a Reply

Your email address will not be published.