জনশুমারি ও গৃহগণনা উপলক্ষে ১৪ জুন জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী

জনপ্রতিনিধি জাতীয় প্রচ্ছদ মুক্তমত লাইফ স্টাইল হ্যালোআড্ডা

আগামী ১৫ থেকে ২১ জুন সাত দিন একযোগে জনশুমারি ও গৃহগণনা করবে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস)। সে উপলক্ষে ১৪ জুন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতির উদ্দেশে ভাষণ প্রদান করবেন।

সোমবার (৬ জুন) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। তিনি জানান, শুমারির প্রাক্কালে বহুল প্রচারিত ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায় নিয়মিত বিজ্ঞাপনের পাশাপাশি আগামী ১৫ জুন জনশুমারি বিষয়ে ক্রোড়পত্র প্রকাশ করা হবে। এছাড়া জনশুমারি ও গৃহগণনায় জনগণ যাতে সক্রিয় অংশ নিয়ে সঠিক তথ্য দেয়, সেজন্য সরকারি ও বিরোধী দলীয় সংসদ সদস্যের সহায়তা চেয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

এদিন সংসদে ৩০০ বিধির এক বিবৃতিতে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘সক্রিয় অংশগ্রহণের পাশাপাশি দেশের সাধারণ জনগণকে শুমারিতে সঠিক তথ্য প্রদানে উদ্বুদ্ধ করতে স্পিকার, ডেপুটি স্পিকার, চিফ হুইপ, অন্যান্য হুইপ, মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী, উপমন্ত্রী এবং বিরোধী দলীয় নেতা ও সংসদ সদস্যকে আমি ব্যক্তিগতভাবে সার্বিক সহায়তা চেয়ে উপানুষ্ঠানিক চিঠি পাঠিয়েছি। এই মহান সংসদে আমি পুনরায় আমার এই সহযোগিতার আবেদন পুনর্ব্যক্ত করছি।’

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘বর্তমান সরকারের ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের অংশ হিসেবে প্রথমবারের মতো সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে আমরা ডিজিটাল জনশুমারি পরিচালনা করতে যাচ্ছি। বৈশ্বিক পরিসরে আমরা পূর্ণাঙ্গ ডিজিটাল পদ্ধতিতে শুমারি পরিচালনা করার একক অনন্য কৃতিত্ব অর্জন করতে যাচ্ছি। যা আমাদের জন্য একটি গর্বের বিষয়।’

এম এ মান্নান বলেন, ‘ডিজিটাল জনশুমারির সফল বাস্তবায়নে ব্যাপক প্রচার কার্যক্রমের আওতায় বাংলাদেশ টেলিভিশনসহ প্রাইভেট চ্যানেলগুলো প্রতিনিয়ত জিঙ্গেল, পাবলিক সার্ভিস অ্যানাউন্সমেন্ট, ডকুড্রামা প্রভৃতিতে প্রচার চালানো হচ্ছে। এছাড়া বাংলাদেশ বেতার, এফএম রেডিও ও কমিউনিটি রেডিওতেও শুমারির বিজ্ঞাপন প্রচারের পাশাপাশি পোস্টার, লিফলেট, ব্যানার, স্টিকার, ব্রুশিউর প্রভৃতি বিতরণ, সব মহানগরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে আলোকসজ্জা, সড়ক দ্বীপ সজ্জিতকরণ, প্রায় ৪ লাখ মসজিদ, মন্দির, প্যাগোডা, গির্জা প্রভৃতির মাধ্যমে সার্বক্ষণিক প্রচারণা চলছে। প্রচার কাজে বিএনসিসি, বাংলাদেশ স্কাউটস্ ও গার্লস্ গাইড অ্যাসোসিয়শনের সদস্যদের সম্পৃক্ত করা হয়েছে। এছাড়াও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে (ফেসবুক, টুইটার, ইউটিউব চ্যানেল) ব্যাপক প্রচারের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।’

মন্ত্রী জানান, শুমারির প্রচার কার্যক্রমের অংশ হিসেবে আগামী ৭ জুন রাষ্ট্রপতি উদ্বোধনী খাম সংবলিত স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্ত করবেন।

আরো পড়ুন : সেভেরোদোনেত্স্ক ঘিরে প্রচণ্ড লড়াইয়ে ইউক্রেনীয় বাহিনী এগিয়ে ; সামরিক গোয়েন্দা প্রধান

Share The News

Leave a Reply

Your email address will not be published.