ঝালকাঠিতে জেলা পুলিশের একাধিক অভিযানে আটক-২ ইয়াবা ও গাজা উদ্ধার

ক্রাইম নিউজ প্রচ্ছদ

ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ: ঝালকাঠিতে জেলা পুলিশের পৃথক পৃথক মাদক বিরোধী অভিযানে ২ মাদক ব্যবসায়ী আটক পূর্বক একশত পিস ইয়াবা ও দেড় কেজি গাজা উদ্ধার করে। সোমবার জেলার নলছিটি উপজেলাধীন ভৈরব পাশা ইউনিয়নে মাদক বিরোধী অভিযান চালিয়ে ইউনিয়নের রায়পাশা গ্রামের বাসিন্দা মোশারেফ সরদারের ছেলে জুয়েল সরদার (৩৬)কে আটক করে একশত পিছ ইয়াবা উদ্ধার করে জেলা ডিবি পুলিশ।

এ বিষয় ঝালকাঠি জেলা গোয়েন্দা শাখার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি ডিবি ) মোঃ মাইনউদ্দিন বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি মাদক ব্যবসায়ী জুয়েল সরদার মাদক বিক্রি করছে, উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে এসআই(নিঃ)/মোঃ হাবিবুর রহমান সংঙ্গীয় অফিসার ও ফোর্সসহ আমরা অভিযান চালিয়ে মাদক ব্যবসায়ী জুয়েল সরদারকে ইয়াবা সহ আটক করা হয়। সে দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় মাদক ব্যবসা করে আসছিল। আটককৃত মাদক ব্যবসায়ীদের মাদক আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

অপরদিকে একই দিনে জেলার রাজাপুর থানা পুলিশের মাদক বিরোধী অভিযানে দেড় কেজি গাঁজাসহ মাদক কারবারি মো. নুরুল আমিন সুজন (২৫) কে আটক করেছে রাজাপুর থানা পুলিশ। সোমবার উপজেলার পিংড়ি এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। মো. নুরুল আমিন সুজন ময়মনসিংহ জেলার ফুলতলা উপজেলার ছোট শুনাই গ্রামের মৃত শমসের আলীর ছেলে।

এ বিষয় পুলিশ সূত্রে জানাযায়, ঝালকাঠি সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (রাজাপুর-কাঠালিয়া) সার্কেল মো. মাসুদ রানা’র তত্বাবধানে এস আই মো. সোহেল, এস আই শুভ্রদেব কুন্ডু, এস আই অনিক চন্দ্র রায়, এ এস আই মো. মামুন মিয়া সহ পুলিশের একটি চৌকস দল এ অভিযান পরিচালনা করেন। সোমবার বিক্রির উদ্দেশ্যে পিংড়িং অবস্থান কালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে গাঁজা সহ আটক করা হয়। সুজন দীর্ঘদিন থেকে এ উপজেলায় খুচরা মাদক কারবারিদের কাছে গাঁজা বিক্রি করে আসছিলো। রাজাপুর থানা ওসি (তদন্ত) মো. মোস্তফা কামাল বলেন, নুরুল আমিনের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা রুজু করে তাকে ঝালকাঠি আদালতে পাঠানো হয়েছে (মামলা নম্বর-১৪)।

ইমাম বিমান, ঝালকাঠি 

আরো পড়ুন : ঝালকাঠিতে আ.লীগ-বিএনপির সংঘর্ষে পুলিশ সহ আহত অন্তত-৫

Share The News

Leave a Reply

Your email address will not be published.