টেকনাফে ইয়াবা কারবারিরা কুপিয়ে দুই হাতের কব্জি বিচ্ছিন্ন করে উল্লাসে মেতে উঠে

ক্রাইম নিউজ পুরুষ পুরুষ নির্যাতন প্রচ্ছদ

কক্সবাজার প্রতিনিধি: কক্সবাজারের টেকনাফে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে কুপিয়ে সিদ্দিক আহম্মদ (৫৫) নামের এক ব্যক্তিকে দুই হাতের কব্জি বিচ্ছিন্ন করে ফেলেছে প্রতিপক্ষ। গতকাল শনিবার দুপুরে টেকনাফের সদর ইউনিয়নে নাজিরপাড়া এলাকায় ঘটনা ঘটে। আহত ছিদ্দিক একই এলাকার মৃত নজির আহমদের ছেলে।

পরিবার ও স্থানীয় লোকজন জানান, পূর্ব শত্রুতার জেরে স্থানীয় ইউপি সদস্য ও ১০১ জন দণ্ডিত ইয়াবা কারবারিদের অন্যতম পলাতক আসামি এনামুল হকের নেতৃত্বে চাদ মিয়া, সাব মিয়াসহ একদল ইয়াবা কারবারি দা, লম্বা কিরিচসহ অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ছিদ্দিককে গাড়ি থেকে নামিয়ে হামলা চালায়।

এসময় তার হাতের কব্জির ওপর থেকে হাত দুটি কেটে নিয়ে যায় হামলাকারীরা।

পরে মাঠে কর্তন করা হাত দুটি নিয়ে উল্লাস করে ইয়াবা কারবারিরা। হামলাকারীদের বিরুদ্ধে একাধিক মাদক মামলা রয়েছে। পরে গ্রামবাসী এগিয়ে এসে রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্মরত চিকিৎসক তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

এ বিষয়ে টেকনাফ জরুরী বিভাগের চিকিৎসক নাছিম ইকবাল জানান, ‘রক্তাক্ত দুই হাতের কব্জি বিচ্ছিন্ন অবস্থায় এক ব্যক্তিকে নিয়ে আসে স্বজনরা। প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার রেফার করা হয়। ’

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ রয়েছে উল্লেখ করে টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল হালিম জানান, ‘এক ব্যক্তির দুই হাত কর্তন করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। হামলাকারীদের ধরতে পুলিশের অভিযান চলছে। ’

অভিযোগ অস্বীকার করে টেকনাফ সদর ইউনিয়নে নাজির পাড়ার ইউপি সদস্য এনামুল হক জানান, ‘ঘটনার সময় আমি পরিষদে মানুষের সেবায় কাজ করছিলাম। মূলত ২০১৫ সালে তারা আমার এক ভাইকে কুপিয়ে হত্যা করেছিল। সামনে সেই মামলায় রায় হবে তাই আমাকে ফাঁসাতে মিথ্যা অভিযোগ করেছে।’

আরো পড়ুন : খেলার ৬৪ মিনিটে মেসির গোলে লিড নিয়েছে আর্জেন্টিনা

Share The News

Leave a Reply

Your email address will not be published.