দিন শেষে বিশ্ব রেকর্ড নিয়ে মাঠ ছেড়েছেন মুশফিক–লিটনের

খেলাধুলা প্রচ্ছদ

২৪ রানে নেই ৫ উইকেট। মিরপুরে আজ এমন বিপর্যয়ের মুখেই জুটি বাঁধেন বাংলাদেশের মুশফিকুর রহিম ও লিটন দাস। দিন শেষে একটা বিশ্ব রেকর্ড নিয়েই মাঠ ছেড়েছেন দুজন। টেস্টে ৫০ রানের কমে দল প্রথম ৫ উইকেট খোয়ানোর পর ষষ্ঠ উইকেটে সবচেয়ে বড় জুটিটা এখন লিটন-মুশফিকেরই। শ্রীলঙ্কানদের রেকর্ড ভেঙেছেন দুজন। ২৫ বা এর কম রানে ৫ বা এর বেশি উইকেট হারানোর পর সবচেয়ে বড় জুটিও এটি। আগের রেকর্ড ১০০, ২০২১ সালে গলে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেই ১৮ রানে ৬ উইকেট খোয়ানোর পর সপ্তম উইকেটে ওয়েস্ট ইন্ডিজের এনক্রুমা বোনার ও জশুয়া দা সিলভার।

টেস্টে ষষ্ঠ উইকেটে সবচেয়ে বড় জুটি (৫০ রানের কমে ৫ উইকেট পতন)
রান                            জুটি                                     ম্যাচ                      ভেন্যু                 সাল
২৫৩*                  মুশফিক–লিটন               বাংলাদেশ–শ্রীলঙ্কা               মিরপুর              ২০২২
২১১                    চান্ডিমাল–ধনাঞ্জয়া           শ্রীলঙ্কা–অস্ট্রেলিয়া              কলম্বো              ২০১৬
২০৬                   ইনজামাম–রাজ্জাক            পাকিস্তান–উইন্ডিজ            জর্জটাউন          ২০০০
১৫৬                   জয়াবর্ধনে–ম্যাথুস             শ্রীলঙ্কা–নিউজিল্যান্ড            গল                 ২০১২
১৪২                    ওয়াটলিং–ডি গ্র্যান্ডহোম     নিউজিল্যান্ড–ইংল্যান্ড      ক্রাইস্টচার্চ          ২০১৮
মুশফিক-লিটন জুটির আরও যে রেকর্ড

• মুশফিক-লিটনের জুটি টেস্টে ষষ্ঠ উইকেটে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ। আগের সর্বোচ্চ ১৯১, ২০০৭ সালে কলম্বোয় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেই মুশফিক-আশরাফুলের।
• মুশফিক-লিটনের জুটি দেশের মাটিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে যেকোনো উইকেটে বাংলাদেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। সর্বোচ্চ ২৬৭, ২০১৩ সালে গল টেস্টে মুশফিক-আশরাফুলের।

২৭৭/৫

টেস্টে ২৫ রানের নিচে প্রথম ৫ উইকেট হারানোর পর সর্বোচ্চ দলীয় স্কোরের বিশ্ব রেকর্ডও গড়েছে বাংলাদেশ। আগের রেকর্ড ভারতের, ২০১০ সালে আহমেদাবাদে ১৫ রানে ৫ উইকেটে হারানোর পর ২৬৬ রান করেছিল দলটি।
১০০ ও ০

বাংলাদেশের ইনিংসে দুটি শতক ও তিনটি শূন্য। টেস্টে এই প্রথম একই ইনিংসে একাধিক শতক ও তিনটি শূন্য দেখল বাংলাদেশ। টেস্ট ইতিহাসে সব মিলিয়ে এ ঘটনা আছে ৩৯টি।
১৫

টেস্টে ১৫তমবার এক ইনিংসে বাংলাদেশের একাধিক ব্যাটসম্যান শতক পেলেন। এর পাঁচবারই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেও এক ইনিংসে পাঁচবার বাংলাদেশের একাধিক ব্যাটসম্যান শতক পেয়েছেন।

২৪ রানে ৫ উইকেট

• টেস্টে দেশের মাটিতে আজই সবচেয়ে কম রানে প্রথম ৫ উইকেট হারিয়েছে বাংলাদেশ। দেশে এর আগে বাংলাদেশ সর্বনিম্ন ৩০ রানে ৫ উইকেট হারিয়েছিল ২০০১ সালে ঢাকার বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে।
• শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এর আগে সর্বনিম্ন ৩৩ রানে প্রথম ৫ উইকেট খুইয়েছিল ২০০৭ সালে কলম্বোর পি সারায়।
• টেস্টে বাংলাদেশ ৩০ রানের কমে প্রথম ৫ উইকেট খুইয়েছে পাঁচবার, এর তিনবারই ২০২২ সালে।

টেস্টে কম রানে বাংলাদেশের প্রথম ৫ উইকেট
স্কোর                         বিপক্ষ                           ভেন্যু                           সাল
১৪/৫                      জিম্বাবুয়ে                       হারারে                         ২০০৪
১৬/৫                     দ. আফ্রিকা                     ডারবান                      ২০২২
১৮/৫                      উইন্ডিজ                        অ্যান্টিগা                     ২০১৮
২৪/৫                       শ্রীলঙ্কা                            মিরপুর                      ২০২২
২৭/৫                       নিউজিল্যান্ড                    ক্রাইস্টচার্চ                  ২০২২

তামিম ইকবাল ও মুমিনুল হকের পর বাংলাদেশের তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে টানা দুই ইনিংসে শতক পেলেন মুশফিকুর রহিম।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মুশফিকের শতক। বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সর্বোচ্চ ৫টি শতক আছে মোহাম্মদ আশরাফুলেরও।
১৪১৭

মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে টেস্টে সবচেয়ে বেশি রান এখন মুশফিকুর রহিমের। মুশফিক পেছনে ফেলেছেন সাকিব আল হাসানকে (১৪০৯)।
৪৪৯৪

মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি রান এখন মুশফিকুর রহিমের। এই রেকর্ডেও সাকিব আল হাসানকে (৪৪৮৩) পেছনে ফেললেন মুশফিক।

মিরপুরে মুশফিকের টেস্ট শতক। মিরপুরে টেস্টে সবচেয়ে বেশি শতকের রেকর্ডে মুমিনুল হকের পাশে বসেছেন মুশফিক।
টেস্টে সর্বোচ্চ ইনিংস খেলেছেন লিটন দাস
টেস্টে সর্বোচ্চ ইনিংস খেলেছেন লিটন দাসছবি: প্রথম আলো
১৩৫

টেস্টে লিটন দাসের সর্বোচ্চ ইনিংস। আগের সর্বোচ্চ ১১৪, ২০২১ সালে চট্টগ্রামে পাকিস্তানের বিপক্ষে।

১৩ বছর পর টেস্টে গোল্ডেন ডাক পেলেন সাকিব আল হাসান। আজকের আগে ২০০৯ সালে চট্টগ্রামে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেই।

আরো পড়ুন : হজযাত্রীদের জন্য ইসলামী ব্যাংকের উপহার

Share The News

Leave a Reply

Your email address will not be published.