নওগাঁর রাণীনগরে অবরুদ্ধ শিক্ষককে ৫ ঘন্টা পর উদ্ধার করেছে পুলিশ

ইভটিজিং পুরুষ প্রচ্ছদ শিক্ষা শিশু অধিকার শিশু নির্যাতন শিশু/কিশোর

নওগাঁ প্রতিনিধিঃ- নওগাঁর রাণীনগরে শিক্ষার্থীদের যৌন হয়রানির অভিযোগে স্থানীয়রা হাফিজার রহমান নামে একজন ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষককে বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে প্রায় ৫ ঘন্টা ধরে অবরুদ্ধ করে রেখেছিল। পরে সহকারী কমিশার (ভূমি) ও থানা পুলিশ তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলের একটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। শিক্ষক হাফিজার রহমান উপজেলার মিরাট ইউনিয়নের মেরিয়া গ্রামের মৃত আশোক আলীর ছেলে।

স্থানীয় এলাকাবাসী ও রানীনগর থানা সুত্রে জানাগেছে, শিক্ষক হাফিজার রহমান বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের নানান ভাবে যৌন হয়রানী করে আসছিল। এঘটনায় ওই শিক্ষককের যৌন হয়রানীর অভিযোগে কয়েক বার মিটিংও করেছেন এলাকাবাসি। এর পরেও শিক্ষকের এমন আচরণের পরিবর্তন না হওয়ায় এবং শিক্ষকের সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে রোববার সকাল সাড়ে ১১টা নাগাদ স্থানীয় লোকজন তাকে অবরুদ্ধ করে। খবর পেয়ে রাণীনগর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গেলেও স্থানীয়দের চাপের মুখে পরে যান।

এব্যাপারে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ও শিক্ষকেরা বলেন ঐ শিক্ষকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া দরকার।

পরে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) হাফিজার রহমান বিকেল তিনটা নাগাদ ঘটনাস্থলে গিয়ে শিক্ষককে শাস্তির আশ্বাস দিয়ে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

রাণীনগর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত)সেলিম রেজা বলেন, উপজেলা সহকারী কমিশনারসহ ঘটনাস্থল থেকে শিক্ষককে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

রাণীনগর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) হাফিজুর রহমান বলেন, শিক্ষককে উদ্ধার করে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মোঃ হাবিবুর রহমান, নওগাঁ

আরো পড়ুন : বিশ্বজুড়ে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে মুসলিমদের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ‘আলফাফা’

Share The News

Leave a Reply

Your email address will not be published.