নওগাঁয় চামড়ার দাম পাওয়া নিয়ে এবারও ব্যবসাহী ও চামড়া বিক্রিতরা অনিশ্চয়তা

অর্থনীতি প্রচ্ছদ শিল্প প্রতিষ্ঠান হ্যালোআড্ডা

নওগাঁ প্রতিনিধিঃ- নওগাঁয় চামড়ার দাম পাওয়া নিয়ে এবারও চামড়া ব্যবসাহী ও বিক্রেতারা অনিশ্চয়তা মনে করছেন, সময়ের সঙ্গে সঙ্গে প্রায় সব জিনিসের দাম বাড়লেও কমেছে কোরবানির পশুর চামড়ার দাম। এক দশক ধরেই চামড়ার ন্যায্যমূল্য থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন কোরবানিদাতারা। ঈদুল আজহায় ন্যায্যমূল্য দূরের কথা, চামড়া বিক্রির জন্য অনেক এলাকায় ক্রেতারই খোঁজ মেলেনি,নওগাঁর কাঁচা চামড়া ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে এমনটা জানা যায়।

চামড়া ব্যবসাহীরা জানান, ব্যবহৃত প্রায় সব ধরনের কেমিক্যালের (রাসায়নিক) দাম বাড়ার পাশাপাশি লবণের দামও বেড়েছে। চামড়া প্রক্রিয়াজাতকরণ খরচ বাড়ায় নেতিবাচক প্রভাব পড়বে কাঁচা চামড়ার দাম,তাই সবমিলে চামড়া আগের মতো বিক্রি হবে পড়তি দরেই।

চামড়া ব্যবসাহীর কাছ থেকে জানতে চাওয়া হয় আসন্ন ঈদুল আজহায় কোরবানিদাতারা পশুর চামড়ার ন্যায্যমূল্য পাবেন কি না এমন প্রশ্নের জবাবে এ ব্যবসায়ী বলেন, চামড়ার দাম আন্তর্জাতিক বাজার, কেমিক্যালের দাম, লবণের দাম ও দেশি বাজারের চাহিদার ওপর নির্ভরশীল তাই এবছর পরিস্থিতি তেমনই রয়েছে।

সরেজমিনে নওগাঁর কাঁচা চামড়ার বাজার ঘুরে দেখা যায়, আড়তগুলোতে এখন মাঝারি আকারের গরুর চামড়া ৩শ থেকে ৪ শ টাকা দামে বিক্রি হচ্ছে। আর বড় চামড়া ৪শ থেকে ৫শ টাকা। এসব চামড়া কাঁচা অবস্থায় ৩শ থেকে ৪শ টাকা কমে কেনা, যা পরবর্তীসময়ে লবণ দিয়ে রাখা হয় ।

তবে ব্যবসাহীরা আশা করছে এবার চামড়ার দাম কিছুটা বাড়বে তবে যদি লবণ ব্যবসায়ীরা লবণের কোনো সংকট তৈরি না করেন।

এই পুলিশ কর্মকর্তা জানান,পশুর চামড়া যেন পাচার কারীরা পাচার করতে না পারে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

প্রাণী সন্পদ কর্মকর্তা শায়লা শারমিন ও নির্বাহী অফিসার আবু বক্কর সিদ্দিক জানান,চামড়া ব্যবসাহী ও চামড়া বিক্রিতেরা যে কোন ক্ষতির সাধন না হয় সেই দিকে দেখা হবে।

মোঃ হাবিবুর রহমান, নওগাঁ

আরো  পড়ুন : সবাইকে ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা জানালেন সজিব ওয়াজেদ জয়

Share The News

Leave a Reply

Your email address will not be published.