না জানিয়ে বিয়ে করায় গাইবান্ধায় বিশেষ অঙ্গ হারালেন যুবক

ওকে নিউজ স্পেশাল ক্রাইম নিউজ নারী পুরুষ পুরুষ অধিকার পুরুষ নির্যাতন প্রচ্ছদ

গাইবান্ধা প্রতিনিধি: গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে না জানিয়ে বিয়ে করায় পদ্ম দাশ (৩৫) নামে এক যুবকের লিঙ্গ কর্তন করেছে তৃতীয় লিঙ্গের(হিজরা) ভোলা নামের এক যুবক।

১৫ ফেব্রুয়ারী মঙ্গরবার সকালে গুরুত্বর অসুস্থ্য পদ্ম দাশকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এর আগে রোববার ১৪ ফেব্রুয়ারী দিনগত রাতে উপজেলার ছোট শিমুলতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পদ্ম উপজেলার আমলাগাছী হাট এলাকার অনন্ত দাশের ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, পদ্ম’র সাথে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধুত্বের সম্পর্ক ছিল তৃতীয় লিঙ্গের ভোলার সাথে। বেশকিছু দিন আগে পদ্ম তার বন্ধু ভোলাকে না জানিয়ে বিবাহ করে। এতে ভোলা মনে মনে ক্ষুব্ধ হয়।

গত সোমবার রাতে ভোলার নানার বাড়ি ছোট শিমুলতলা গ্রামে পদ্মকে দাওয়াত করেন। পরিকল্পিতভাব খাবারের সাথে ঘুমের ঔষুধ মিশিয়ে তাকে আপ্যায়ন করেন। কিছুক্ষণ পর পদ্ম অচেতন হয়ে পরলে ব্লেড দিয়ে তার লিঙ্গ কর্তন করে ভোলা! এতে পদ্ম চিৎকার শুরু করলে অসুস্থ্য অবস্থায় স্থানীয়রা তারা উদ্ধার করে পলাশবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে আজ সকালে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন চিকিৎসকরা।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পলাশবাড়ী থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক(এসআই) শহিদুল ইসলাম জানান, ঘটনার পর পরই ভোলা নামের তৃতীয় লিঙ্গের বাড়ি থেকে পালিয়েছে। আহত পদ্ম দাশকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ভুক্তভোগীর পরিবারের পক্ষে কেউ থানায় অভিযোগ দায়ের করেনি বলেও জানান তিনি।

ফারুক হোসেন
গাইবান্ধা।

Share The News

Leave a Reply

Your email address will not be published.