বিএনপির ইফতারে আসেননি চীন–রাশিয়ার কূটনীতিকরা

আন্তর্জাতিক জনপ্রতিনিধি ধর্ম প্রচ্ছদ রাজনীতি

ঢাকায় নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকদের সম্মানে ইফতার মাহফিল করেছে বিএনপি। এতে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার হাস, যুক্তরাজ্যের হাইকমিশনার রবার্ট ডিকসন, ভারতের হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামীসহ বিদেশি কূটনীতিকেরা অংশ নেন। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ দলের নেতারা কূটনীতিকদের অভ্যর্থনা জানান।

বিএনপির একটি সূত্র জানিয়েছে, ইফতারে চীন ও রাশিয়ার কূটনীতিকদের নিমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। তবে তাঁরা ইফতারে অংশ নেননি।
রাজধানীর হোটেল ওয়েস্টিনে মঙ্গলবার ওই ইফতার অনুষ্ঠান হয়। অনুষ্ঠানে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান লন্ডন থেকে ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত হয়ে বক্তব্য দেন।

ইফতারের আগে বিএনপির মহাসচিব সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন। মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘আগে সব সময় দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আপনাদের সঙ্গে ইফতার করতেন। তিনি আজ গৃহবন্দী অবস্থায় রয়েছেন।’
পরে কূটনীতিকেরা বাংলাদেশসহ মুসলিম উম্মাহর শান্তি ও কল্যাণ কামনা করে আয়োজিত মোনাজাতে অংশ নেন। ইফতারে আরও অংশ নেন ফিলিস্তিনের রাষ্ট্রদূত ইউসুফ রামাদান, তুরস্কের রাষ্ট্রদূত মুস্তফা ওসমান তুরান, সুইডেনের রাষ্ট্রদূত আলেকজান্দ্রা বার্গ ফন লিন্ড, সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত নাথালি শিউয়াখ, নরওয়ের রাষ্ট্রদূত এসপেন রিকটার ভেন্ডসেন। পাকিস্তানসহ বেশ কয়েকটি দেশের কূটনীতিক এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধিও এতে যোগ দেন। কূটনীতিকদের পাশাপাশি জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা, জাতিসংঘের উন্নয়ন কর্মসূচি (ইউএনডিপি), ন্যাশনাল ডেমোক্র্যাটিক ইনস্টিটিউট, ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের প্রতিনিধিরা ইফতারে অংশ নেন। অনুষ্ঠানে নৈশভোজের আয়োজনও ছিল।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম ছাড়াও দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, জমিরউদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, সেলিমা রহমান, ইকবাল হাসান মাহমুদ, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, শাহজাহান ওমর, আলতাফ হোসেন চৌধুরী, আবদুল আউয়াল মিন্টু, মো. শাহজাহান, মীর নাসির, আহমেদ আজম খান, এ জেড এম জাহিদ হোসেন, নিতাই রায় চৌধুরী, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমান উল্লাহ আমান, আবদুস সালাম, কেন্দ্রীয় নেতা মজিবুর রহমান, খায়রুল কবির, হাবিব উন নবী খান, শামা ওবায়েদ, তাবিথ আউয়াল, রুমিন ফারহানা ইফতারে অংশ নেন।

এ ছাড়া শিক্ষাবিদ আ ফ ম ইউসুফ হায়দার, অধ্যাপক দিলারা চৌধুরী, অধ্যাপক মাহবুবউল্লাহ, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর সালেহউদ্দিন আহমেদ, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সম্পাদক মাহবুব উদ্দিন খোকন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অধ্যাপক সুকোমল বড়ুয়া, দৈনিক ইনকিলাব সম্পাদক এ এম এম বাহাউদ্দিন, মানবজমিন সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী প্রমুখ ইফতারে যোগ দেন।

আরো পড়ুন : বাইডেন–মোদির ইউক্রেন নিয়ে বৈঠকে অসন্তুষ্ট যুক্তরাষ্ট্র

Share The News

Leave a Reply

Your email address will not be published.