মাথায় আঘাত পেয়ে পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া মহাসড়কে পড়ে ছিল রক্তাক্ত শিশুটি

জনদুর্ভোগ জাতীয় প্রচ্ছদ শিশু অধিকার শিশু/কিশোর হ্যালোআড্ডা

পঞ্চগড় প্রতিনিধি: বিকেলে মহাসড়ক-সংলগ্ন বাড়ির বাইরেই খেলছিল তিন বছর বয়সী শিশু নুসরাত জাহান। কিছুক্ষণ পর পথচারীদের ডাকাডাকিতে পরিবারের সদস্যরা বাইরে গিয়ে দেখেন, শিশুটি সড়কের ওপর রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। পরে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় স্বজনেরা শিশুটিকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকেরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলার দৌলতপাড়া এলাকায় পঞ্চগড়-বাংলাবান্ধা মহাসড়কে আজ শনিবার বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকের ঘটনা এটি। নিহত শিশু নুসরাত ওই এলাকার নাজমুল হকের মেয়ে। শিশুটি মাথায় আঘাত পেয়ে রক্তাক্ত হয়।

প্রতিবেশী আবদুল মালেক (৩২) বলেন, মহাসড়ক-সংলগ্ন বাড়ি হওয়ায় বাড়ির বাইরে খেলতে খেলতে হয়তো শিশুটি মহাসড়কে উঠেছিল। এ সময় কোনো ব্যাটারিচালিত অটোভ্যান হয়তো তাকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে গেছে। তবে কেউ ঘটনা দেখেননি। পরে সড়কে যাতায়াতকারী লোকজনের ডাকে পরিবারের সদস্যরা দৌড়ে এসে শিশুটিকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। শিশুটি মাথায় আঘাত পেয়ে রক্তাক্ত হয়েছিল।

তেঁতুলিয়া মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জাহেরুল ইসলাম বলেন, পরিবারের সদস্যদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ময়নাতদন্ত ছাড়াই শিশুটির লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে কারও বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ না থাকায় এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু (ইউডি) মামলা করা হয়েছে।

আরো পড়ুন : সুইডেন ও ইউরোপের দেশগুলোতে মাঙ্কিপক্স বেড়েছে

Share The News

Leave a Reply

Your email address will not be published.