মেক্সিকোর জার্সির অবমাননা বিতর্ক নিয়েও কথা বলেছেন মেসি

খেলাধুলা প্রচ্ছদ হ্যালোআড্ডা

মেক্সিকোর বক্সার ক্যানেলো আলভারেজের কাছে তেমনটাই মনে হয়েছিল। মেক্সিকোর বিপক্ষে জিতে আর্জেন্টিনার ড্রেসিংরুমে উদ্‌যাপনের সময় মেসি নাকি তাঁর দেশের জার্সি অবমাননা করেছেন। টুইটারে এক ভিডিও পোস্ট করে এ জন্য আলভারেজ নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন। শুধু, তা-ই নয়, তিনি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মেসিকে রীতিমতো মারার হুমকি দিয়েই বসেন।

কাল পোল্যান্ডকে গ্রুপ ‘সি’র শেষ ম্যাচে ২–০ গোলে হারানোর পর মেক্সিকোর জার্সির অবমাননা বিতর্ক নিয়েও কথা বলেছেন মেসি। আর্জেন্টাইন তারকা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, মেক্সিকান জার্সির অবমাননা নিয়ে যে কথাবার্তা আলভারেজ বলছেন, সেটি ভুল–বোঝাবুঝি, ‘আমি মনে করি ব্যাপারটা ভুল–বোঝাবুঝি। আমাকে যাঁরা চেনেন, সবাই জানেন, আমি কখনোই অন্যকে অসম্মান করি না। আমার এখানে ক্ষমা চাওয়ার কিছু নেই। কারণ, আমি মেক্সিকো জাতীয় দল বা মেক্সিকান জনগণকে অসম্মান করিনি।’

মেক্সিকো দলের অধিনায়ক আন্দ্রেস গুয়ারদাদোও এ ব্যাপারে নিজের ঠান্ডা প্রতিক্রিয়াই জানিয়েছেন, ‘ভিডিওতে যা দেখা গেছে, সেটি অস্বাভাবিক কিছুই নয়। ফুটবলের ড্রেসিং রুমে এমন হতেই পারে। তা ছাড়া মেসির ব্যাপারটি পুরোপুরি অনিচ্ছাকৃত।’

ঘটনাটা আর্জেন্টিনা–মেক্সিকো ম্যাচের পরে আর্জেন্টিনার ড্রেসিং রুমের। এক ভিডিওতে দেখা যায় সেখানকার মেঝেতে পড়ে আছে মেক্সিকান জাতীয় দলের একটি জার্সি। যেটি হয়তো ম্যাচের পর স্মারক হিসেবে পেয়েছিলেন আর্জেন্টিনার কোনো খেলোয়াড়। নিজেদের ব্যবহৃত জার্সির সঙ্গেই মেক্সিকান জার্সিটিও মেঝেতে রাখা হয়েছিল। দুর্ঘটনাবশত সেই জার্সি মেসির পায়ের নিচে পড়ে।

এই ভিডিও দেখেই খেপে যান মেক্সিকান বক্সার ক্যানালো আলভারেজ। মেসি মেক্সিকো জাতীয় দলের জার্সি দিয়ে আর্জেন্টাইন ড্রেসিং রুমের ‘মেঝে পরিষ্কার করেছেন’ বলে টুইটারে অভিযোগ তোলেন তিনি। এখানে থেমে গেলেও চলত, তিনি মেসিকে মারারও হুমকি দিয়ে বসেন। লেখেন, ‘ঈশ্বর না করুক, মেসি যেন আমার সামনে না পড়ে কখনো।’ সরাসরি মারার হুমকি না দিলেও আলভারেজের টুইটে প্রচ্ছন্নভাবে সেটি ছিল।

ব্যাপারটি নিয়ে প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। মেক্সিকান বক্সার ফুটবল বোঝেন না বা তাঁর ফুটবল দলের ড্রেসিং রুম সম্পর্ক কোনো ধারণা নেই বলে পাল্টা মন্তব্য করেন আর্জেন্টিনার সাবেক তারকা সের্হিও আগুয়েরো। টুইটার ব্যবহারকারীরাও আলভারেজের মন্তব্যকে খুব ভালোভাবে নেননি। সবারই বক্তব্য ছিল মেসি যা করেছেন, সেটি পুরোপুরি অনিচ্ছাকৃত। আলভারেজের হুমকি দেওয়া ঠিক হয়নি।

সমালোচনার তোপে আলভারেজ শেষ পর্যন্ত ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন মেসির কাছে, ‘গত কয়েক দিন আমি আমার দেশের প্রতি ভালোবাসা থেকে একটা ঘোরের মধ্যে ছিলাম। আমি হয়তো কিছু মন্তব্য করে ফেলেছি, যেগুলো প্রাসঙ্গিক ছিল না। সুতরাং আমি মেসি ও আর্জেন্টাইন জনগণের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করছি।’

কাল দিনের অপর ম্যাচে মেক্সিকো ২–১ গোলে সৌদি আরবকে হারালেও তাদের বিদায় নিতে হচ্ছে প্রথম রাউন্ড থেকে। পোল্যান্ড ও মেক্সিকোর পয়েন্ট সমান হলেও গোল ব্যবধানে দ্বিতীয় রাউন্ডে আর্জেন্টিনার সঙ্গী হয়েছে পোল্যান্ডই।

আরো পড়ুন : শিশু আলিনার মাথা উদ্ধার করল পিবিআই

Share The News

Leave a Reply

Your email address will not be published.