শেষ মূহর্তে দিনাজপুরে জমে উঠেছে ইউপি নির্বাচন

জনপ্রতিনিধি জাতীয় নির্বাচন রাজনীতি


শাহ্ আলম শাহী, দিনাজপুর থেকেঃ ৩১ জানুয়ারী ৬ষ্ঠ ধাপের ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে উত্তরের সীমান্ত জেলা দিনাজপুরে ৪টি উপজেলার মোট ২২টি ইউপি নির্বাচনী এলাকা শেষ মূহুর্তে উৎসবমূখর হয়ে উঠেছে। এই ধাপে নির্বাচনে ভোট অনুষ্ঠিত হবে,দিনাজপুর সদরে ১০টি, বিরল উপজেলায় ৬টি, বীরগঞ্জে ২টি ও ঘোড়াঘাট উপজেলায় ৪টি মিলে মোট ২২টি ইউনিয়নে। করোনার রেড জোন হিগসেবে ঘোষিত জেলা ও তীব্র শীতকে উপেক্ষা করে প্রার্থীরা চষে বেড়াচ্ছেন,নির্বাচনী এলাকা। জোরে-সরে চলছে,প্রচার-প্রচারণা। সকাল থেকে গভীর রাত অবধি প্রচার প্রচারণায় ৪ উপজেলার ২২টি ইউনিয়নে ১০৫৮ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী এবং সাধারণ সদস্য ও সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্য প্রার্থীগণ ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। প্রার্থীরা ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন এবং ভোট প্রার্থনা করছেন। প্রার্থী ও একনিষ্ট সমর্থকদের রাতের ঘুম ও নাওয়া-খাওয়া হারাম হয়ে গেছে।


এবারের নির্বাচনে ইভিএম-এ এই প্রথম ভোট দিতে পারবে জেনে অনেক ভোটার যেমন খুশী, তেমনি আবার কিছু কিছু ভোটার এতে নাখোশও হয়েছেন। ভোট প্রদানে জালিয়াতির শংকা না থাকলেও ইতোমধ্যে বেশকিছু এলাকায় প্রভাব বিস্তার,ভোটারদের হুমকি ধামকি দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। টাকাও উড়ছে এবার অন্যান্য নির্বাচনের চেয়ে বেশি। শুধু টাকা নয়, কিভাবে সমর্থক ও ভোটারদেও খুশি রাখা যায়,এজন্য সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন,প্রার্থীরা। দামি মোবাইল ফোন,মোটর সাইকেল,ইজি-বাইক এমন কি নেতাদের কার ক্রয় করে দেয়ারও অভিযোগ উঠেছে।


নির্বাচন বিশ্লেষক ও বিশেজ্ঞরা মনে করছেন,সুষ্ঠু ও স্বচ্ছ ভোট হলে ৬ষ্ঠ ধাপের ইউপি নির্বাচনে দিনাজপুরে ১৫টির বেশি ইউপিতে জিতবে বিরোধী দল তথা স্বতন্ত্র প্রার্থীরা।
নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কিছু কিছু এলাকায় উত্তেজনা রয়েছে। তবে, সুষ্ঠু ও স্বচ্ছ নির্বাচনের জন্যে দিনাজপুর জেলা প্রশাসন ও নির্বাচন কমিশন ইতোমধ্যে প্রতিটি ইউনিয়নে একজন করে ম্যাজিষ্ট্রেটকে দায়িত্ব অর্পন করেছেন। নির্বাচনে নিছিদ্র নিরাপত্তার জন্যে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।
শাহ্ আলম শাহী, দিনাজপুর থেকে।

Share The News

Leave a Reply

Your email address will not be published.