সুইডেনের রাজধানী স্টকহোমে পবিত্র কোরআন পোড়ানোর নিন্দা হেফাজতের

আন্তর্জাতিক ধর্ম প্রচ্ছদ রাজনীতি হ্যালোআড্ডা

নিজস্ব প্রতিবেদক : সুইডেনের রাজধানী স্টকহোমে পবিত্র কোরআন পোড়ানোর ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। পাশাপাশি ইসলামের মর্যাদা রক্ষায় মুসলিম বিশ্বকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়েছে সংগঠনটি।

বুধবার এক বিবৃতিতে হেফাজতের আমির শাহ মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী ও মহাসচিব সাজিদুর রহমান এ আহ্বান জানিয়েছেন। বিবৃতিতে বলা হয়, পবিত্র কোরআনে আগুন দিয়ে সারা বিশ্বের মুসলিমদের ধর্মীয় অনুভূতিতে চরমভাবে আঘাত করা হয়েছে।

এ ঘটনায় জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের নীরবতার কড়া সমালোচনা করেন হেফাজত নেতারা। তাঁরা বলেন, ‘মুসলিম বিশ্বে পান থেকে চুন খসলে জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক বিশ্ব হুমড়ি খেয়ে পড়ে। কিন্তু এমন ভয়ংকর মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনায় তারা নিশ্চুপ। তাদের এই নীরবতা প্রমাণ করে, এসব ঘটনায় তারা মৌন সমর্থন দিচ্ছে। এই নীরবতার পরিণাম শুভ হবে না।’

কোরআন পোড়ানোর ঘটনায় জড়িত ডেনিশ রাজনীতিবিদ রাসমাস পালুদানকে আন্তর্জাতিক আদালতের মাধ্যমে বিচারের মুখোমুখি করারও দাবি জানিয়েছে হেফাজতে ইসলাম। বিবৃতিতে বলা হয়, পালুদানের পাশাপাশি সুইডিশ সরকারকেও এ ঘটনায় জবাবদিহির আওতায় আনতে হবে।

মুসলিম বিশ্বকে ঐক্যবদ্ধভাবে কোরআন অবমাননাসহ ইসলামবিদ্বেষী সব কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদ জানানোর আহ্বান জানিয়েছেন হেফাজত নেতারা। তাঁরা বলেন, মুসলিম বিশ্ব ঐক্যবদ্ধ হলে এসব বিকৃতরুচির ইসলামবিদ্বেষী ও তাদের পৃষ্ঠপোষকেরা এমন কর্মকাণ্ড করার সাহস পাবে না।

সুইডেনের রাজধানী স্টকহোমের নর্দার্ন রেলওয়ে স্কয়ার নামের এলাকায় অবস্থিত তুরস্কের দূতাবাস। সম্প্রতি দূতাবাসের সামনে রাসমুস পালুদান নামের এক ব্যক্তি কোরআন শরিফে আগুন দিয়েছেন। পালুদান ডেনমার্কের কট্টর ডানপন্থী রাজনৈতিক দল হার্ড লাইনের নেতা

বাংলাদেশ সরকারের উদ্দেশে বিবৃতিতে বলা হয়, ‘আমরা দেখেছি বাংলাদেশ সরকার এই ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়েছে। আমরা দাবি জানাচ্ছি, মুসলিম বিশ্বকে সঙ্গে নিয়ে বাংলাদেশ যেন সুইডিশ সরকারের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে আওয়াজ তোলে।’

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, প্রয়োজনে সুইডেনের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থগিতেরও পক্ষে হেফাজত। এ ছাড়া বিশ্বের সব মুসলমান ও বিবেকবান মানুষকে সুইডিশ পণ্য বর্জনের আহ্বান জানিয়েছে হেফাজতে ইসলাম।

আরো পড়ুন : তত্ত্বাবধায়ক সরকারের জন্য ১৭৩ দিন হরতাল করার সিস্টেম আপনি চালু করেছিলেন

Share The News

Leave a Reply

Your email address will not be published.