৩টি গানের স্ট্রিমিং বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জ্যাকসন এস্টেস্ট

আন্তর্জাতিক প্রচ্ছদ বিনোদন সংগীত হলিউড

২০১০ সালে প্রয়াত পপ কিংবদন্তি মাইকেল জ্যাকসনের বেশ কিছু গান নিয়ে একটি মরনোত্তর সংকলন তৈরি হয়েছিল। সেই অ্যালবামের নাম ছিল ‘মাইকেল’। কিন্তু সেই সংকলনের তিনটি গানকে কেন্দ্র করে আগেই উঠেছিল গুরুতর অভিযোগ।

দাবি করা হয়েছিল যে, ‘ব্রেকিং নিউজ,’ ‘মনস্টার’ এবং ‘কিপ ইওর হেড আপ’ শিরোনামের এই তিনটি গানে আদৌ গলা দেননি মাইকেল জ্যাকসন! সম্প্রতি এই তিনটি গানের স্ট্রিমিং বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জ্যাকসন এস্টেস্ট এবং সনি মিউজিক।

গত ৫ জুলাই জ্যাকসন এস্টেস্ট এবং সনি মিউজিকের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে , ‘দ্য এস্টেট অফ মাইকেল জ্যাকসন এবং সনি মিউজিক ২০১০ সালের অ্যালবাম মাইকেল থেকে ‘ব্রেকিং নিউজ,’ ‘মনস্টার’ এবং ‘কিপ ইওর হেড আপ’ ট্র্যাকগুলি সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ এই ট্র্যাকগুলো নিয়ে যে শোরগোল তৈরি হয়েছে তা এড়াতে এটাই সবচেয়ে ভাল উপায়।’

তবে গানগুলির স্ট্রিমিং বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও বিবৃতিতে কোনোভাবেই উল্লেখ করা হয়নি যে বিতর্কিত গানগুলো মাইকেল জ্যাকসনের গাওয়া নয়। বরং তারা জোর দিয়েই বলেছে, ‘এই গানগুলো যে অথেন্টিক নয় সে সম্পর্কে এখানে কিছু বলা হচ্ছে না। শুধু গানগুলোকে ঘিরে যে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে তা এড়ানোর জন্যই এই সিদ্ধান্ত।’

২০১৪ সালে ভেরা সেরোভা নামের এক জ্যাকসন অনুরাগী ক্যালিফোর্নিয়ায় প্রথম এই গানগুলো নিয়ে মামলা দায়ের করেন। সূত্র: বিলবোর্ড।

আরো পড়ুন : দলীয় নেতৃত্ব থেকে সরে যাওয়ার ঘোষণা দিলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

Share The News

Leave a Reply

Your email address will not be published.